advertisement
আপনি দেখছেন

হঠাৎ করেই মঙ্গলবার ‘উধাও’ হয়ে গিয়েছিলো নিউ ইয়র্ক টাইমস, গার্ডিয়ান, রেডিট এবং বিবিসির মতো সংবাদ মাধ্যমের ওয়েবসাইট। এমন কি ইংল্যান্ডের সরকারি ওয়েবসাইটও বেশ সময় অফলাইনে ছিলো। এর পেছনের কারণ পাওয়া গেছে।

what caused outage at nytimes guardian

বিস্ময়কর এই ঘটনার পেছনে ছিলো ফাস্টলি নামের একটি প্রতিষ্ঠান, যারা বিশ্বজুড়ে ক্লাউড কম্পিউটিং সেবা প্রদান করে। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে তাদের কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক বা সিডিএনের একটি কৌশলগত জটিলতার কারণে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিলো।

এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, “আমি আমাদের সার্ভিস কনফিগারেশনের একটি জটিলতা চিহ্নিত করেছি, যার কারণে এই সমস্যা হয়েছে। আমরা এর মধ্যেই সমস্যাটির সমাধান শুরু করেছি এবং ওয়েবসাইটগুলো স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে।”

বৃটিশ সামার টাইম সকাল ১১টার দিকে সমস্যা শুরু হয় এবং এক ঘণ্টা ধরে এই সমস্যা স্থির ছিলো। এই সমস্যার শিকার হয় সিএনএন, হুলু, টুইচ এবং টুইটারের ইমোজিও।

ফাস্টলি এজ ক্লাউড নামে একটি সেবা সরবারাহ করে। ওয়েবসাইটের লোডিং টাইম বৃদ্ধির জন্য এটি ব্যবহার করা হয়। যখন খুব বেশি ভিজিটর থাকে তখন যাতে ওয়েবসাইটগুলো যথাযথভাবে সার্ভিস দিতে সক্ষম হয়, ফাস্টলি তা নিশ্চিত করে।

এর আগে অ্যামাজনও এই ধরনের সমস্যার শিকার হয়েছিলো। অ্যামাজনেরও একটি ক্লাউডভিত্তিক কম্পিউটিং সেবা আছে।

এই ঘটনা একটি প্রশ্ন সামনে নিয়ে এসেছে— মাত্র হাতে গোনা কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের কাছে কম্পিউটিং অবকাঠামো থাকা উচিত কি না; প্রশ্নটি মূলত এই নিয়ে। এর কারণেই একটি সমস্যার কারণে প্রচুর ওয়েবসাইট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।