advertisement
আপনি দেখছেন

পেন্টাগনের প্রধান সফটওয়্যার অফিসার নিকোলাস চাইলান গত মাসে পদত্যাগ করেছেন। মার্কিন সেনাবাহিনীতে প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের ধীরগতির প্রতিবাদে তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাছাড়া চীন যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে, এ বিষয়টিও তিনি মানতে পারছিলেন না।

china usa aiকৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় চীনের তুলনায় অনেকটাই পিছিয়ে যুক্তরাষ্ট্র

ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আগামী ১৫ থেকে ২০ বছরে চীনের বিরুদ্ধে আমাদের (যুক্তরাষ্ট্র) প্রতিযোগিতামূলক লড়াইয়ের কোনো সুযোগই নেই। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, মেশিন লার্নিং এবং সাইবার ক্ষমতার অগ্রগতির কারণে বেইজিং বিশ্বব্যাপী আধিপত্যের দিকে যাচ্ছে। চীনের অগ্রগতির তুলনায় কিছু সরকারি বিভাগে মার্কিন সাইবার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এখনো কিন্ডারগার্টেন পর্যায়ে রয়ে গেছে।

এসব বিষয়ে মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের সঙ্গে কাজ করতে গুগলের অনীহাকেও দায়ী করেন চাইলান। কিন্তু চীনা কোম্পানিগুলো এক্ষেত্রে বেইজিংয়ের সাথে কাজ করতে বাধ্য। চীন কোনো নীতি-নৈতিকতার পরোয়া না করে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় ব্যাপক বিনিয়োগ করছে। অবশ্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও চীনের চেয়ে তিনগুণ বেশি বিনিয়োগ করছে। তবে সমস্যা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র এসব বিনিয়োগ সঠিক জায়গায় করছে না। ফলে ব্যাপক বিনিয়োগ সত্ত্বেও যথাযথ কাজ হচ্ছে না।

nicolas chaillanনিকোলাস চাইলান

নিকোলাস চাইলান বলেন, পেন্টাগন অনেক ক্ষেত্রে ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তাদের নিয়োগ দেয়। অথচ সে বিষয়ে তাদের বিন্দুমাত্র কোনো ধারণা বা অভিজ্ঞতা নেই। এতে প্রয়োজনের তুলনায় অনেক বেশি আমলাতন্ত্র ও অতিরিক্ত নিয়ন্ত্রণের মুখে পড়ে গেছে সেক্টরটি। ফলে দিন দিন তারা চীনের তুলনায় পিছিয়ে পড়ছে।