advertisement
আপনি পড়ছেন

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, বর্তমানে বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহার করেন প্রায় সাড়ে নয় কোটি মানুষ। আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে তা শতভাগে উন্নীত করা হবে। বুধবার এস্তোনিয়ার রাজধানী তাল্লিনে ‘পঞ্চম ই-গভর্ন্যান্স সম্মেলন ২০১৯’-এর দ্বিতীয় দিনে মিনিস্ট্রিয়াল প্যানেল আলোচনায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

zunaid ahmed palak

পলক বলেন, বর্তমান সরকার ইন্টারনেটের দাম একেবারে কমিয়ে দিয়েছে। তাই দেশের সাধারণ মানুষ ইন্টারনেট পাচ্ছেন হাতের নাগালের মধ্যে। প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছে গেছে। বর্তমানে দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী সংখ্যা প্রায় সাড়ে নয় কোটি এবং আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে শতভাগ নিশ্চিত করা হবে এই ইন্টারনেট সেবা।

তিনি বলেন, সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের জন্য সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। সারাদেশে ইন্টারনেট কানেক্টিভিটি বাড়ানোর দিকেও গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার।

তিনি আরও বলেন, শহর থেকে গ্রামে ডিজিটাল সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দেয়ার জন্য পাঁচ হাজার ডিজিটাল সার্ভিস সেন্টার স্থাপন করেছে বাংলাদেশ সরকার। প্রতি মাসে এসব ডিজিটাল সার্ভিস সেন্টার থেকে দুই'শর অধিক বিভিন্ন সেবা পাচ্ছেন দেশের ষাট লাখ মানুষ। তাই ডিজিটাল সেবা প্রদান করতে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে চালু করা হবে দুই হাজার নতুন অনলাইন সেবা এবং ৯০ শতাংশ সরকারি সেবা দেয়া হবে অনলাইনের মাধ্যমে।

উল্লেখ্য, সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের এই সেশনে বিভিন্ন দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের গুরুত্বপূর্ণ সংস্থার প্রতিনিধি ও মন্ত্রীরা অংশ নেয়। এতে আলোচক হিসেবে অংশ নেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।