advertisement
আপনি দেখছেন

সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ের আগেই দ্বিতীয় কিস্তিতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) আরো এক হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করেছে গ্রামীণফোন। আজ মঙ্গলবার বিটিআরসির কার্যালয়ে সংস্থাটির চেয়ারম্যানের কাছে এই টাকা হস্তান্তর করেন গ্রামীণফোনের কর্মকর্তারা।

grameenphone btrc high courtগ্রামীণফোন

পরে অনলাইনে এক সংবাদ সম্মেলনে বিটিআরসির চেয়ারম্যান জানান, বাকি টাকা আদায়ে গ্রামীণফোনের সঙ্গে শিগগিরই আলোচনায় বসবেন তারা। এ ছাড়া বাংলালিংক ও এয়ারটেলে শিগগিরই নিরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে।

এর আগে চলতি বছরের ২৩ ফেব্রুয়ারি আদালতের নির্দেশে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) এক হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করে গ্রামীণফোন। কোম্পানিটির পক্ষ থেকে হেড অব রেগুলেটরি সাদাত হোসেনের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বিটিআরসিতে গিয়ে এক হাজার কোটি টাকার চেক হস্তান্তর করেন।

পরেরদিনই গ্রামীণফোনকে আরো ১,০০০ কোটি টাকা দিতে নির্দেশ দেন সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ। আগামী তিন মাসের মধ্যে এ টাকা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) হাতে তুলে দিতে বলা হয়। সেই প্রেক্ষিতে আজ দ্বিতীয় কিস্তির টাকা পরিশোধ করা হলো।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ২৪ নভেম্বর দেশের সর্বোচ্চ আদালত বিটিআরসির নিরীক্ষা দাবির ১২ হাজার কোটি টাকার মধ্যে ২,০০০ কোটি টাকা তিন মাসের মধ্যে বিটিআরসিকে পরিশোধ করতে সময় বেঁধে দিয়েছিলেন।