advertisement
আপনি দেখছেন

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে হেগলি ওভাল মাঠের নিকটবর্তী কেন্দ্রীয় আল-নুর মসজিদে নামাজরত মুসল্লিদের ওপর একাধিক বন্দুকধারীর হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৭ জনে দাঁড়িয়েছে। শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা দেড়টায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় নিউজিল্যান্ড সফরে থাকা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়েরা ও মসজিদেই জুমার নামাজ আদায় করছিলেন। তবে তারা অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন, তারা সবাই নিরাপদেই আছেন।

tamim mushfiq newzealand

এ ঘটনায় মুশফিকুর রহীম এক টুইটে বলেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ্‌! ক্রাইস্টচার্চে হামলার ঘটনা থেকে আল্লাহ্‌ আজ আমাদের বাঁচিয়ে দিলেন। আমরা অনেক বেশি ভাগ্যবান। কখনোই এমন ঘটনার সম্মুখীন হতে চাই না। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

দেশটির গণমাধ্যম বলছে, ডিনস এভে অবস্থিত মসজিদ আল নুর ও লিনউড এভের লিনউড মসজিদে বন্দুক হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ হামলার ঘটনায় এক সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ হামলার পেছনে আরো অপরাধীরা জড়িত থাকতে পারে বলে ধারণা পুলিশের।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি টেস্ট সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ খেলতে দেশটি সফরে রয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা। হামলার সময় তারা ক্রাইস্টচার্চের ওই মসচিদে অবস্থান করলেও সবাই নিরাপদে আছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলের ওপেনার তামিম ইকবাল।

তিনি এক টুইটে জানিয়েছেন, ‘পুরো দল বন্দুকধারীদের হাত থেকে বেঁচে গেছে। ভয়াবহ অভিজ্ঞতা। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

এ ঘটনা নিয়ে নিউজিল্যান্ড-বাংলাদেশ সিরিজ কাভার করতে যাওয়া ক্রিকইনফোর বাংলাদেশ প্রতিনিধি মোহাম্মদ ইসাম এক টুইটে বলেন, ‘হেগলি পার্কের কাছে মসজিদ থেকে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা পালিয়ে রক্ষা পেয়েছেন, যেখানে বন্দুকধারীরা হামলা চালিয়েছে।’

প্রসঙ্গত, ক্রাইস্টচার্চের হেগলি ওভাল মাঠে শনিবার সফররত বাংলাদেশ ও নিউ জিল্যান্ডের তৃতীয় টেস্ট হওয়ার কথা রয়েছে।