advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 01 মিনিট আগে

একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনায় বাংলাদেশ দলের সদস্যদের মাঠে নামার বদলে দেশে ফেরার বিমানে চেপে বসতে হয়েছে। বাংলাদেশ সময় ভোর পাঁচটায় সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে করে রওনা হয়েছেন বাংলাদেশ দলের ১৫ জন ক্রিকেটারসহ মোট ১৯ সদস্য। রাত আনুমানিক ১০টা ৪০ মিনিটে দেশের মাটিতে অবতরণ করার কথা রয়েছে তাদের।

tamim mushfiq newzealand

দেশে অবস্থানরত বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম টোয়েন্টিফোর লাইভ নিউজপোরকে বলেন, 'প্রথমে ভাবা হয়েছিল, আলাদা আলাদা করে যে কয়জনকে পারা যায় একে একে দেশে ফেরত পাঠানো হবে।  তবে পরে ১৯ সদস্যের দলের একসঙ্গে ফেরার ব্যবস্থা করা গেছে।  এই ফ্লাইটটি বাংলাদেশে এসে পৌঁছানোর কথা শনিবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে।' 

এর আগে দেশে ফেরা নিয়ে জানতে চাইলে দলের ম্যানেজার খালেদ মাসুদ সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন, ‘শনিবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টায় আমরা রওনা দেব। আশা করছি রাত ১০টা ৪০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবো।  আমরা ১৯ জন ফিরব।  কোচিং স্টাফের কেউ ওয়েস্ট ইন্ডিজ যাবে, কেউ হয়তো দক্ষিণ আফ্রিকায়।  তাঁরা দ্রুতই টিকিট পেয়ে যাবেন।’

উল্লেখ্য, শুক্রবার জুমার নামাজের আগে ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুকধারীদের গুলিতে ৩ বাংলাদেশিসহ নিহত হয় ৪৯ জন। দুটি মসজিদের একটিতে (আল নূর মসজিদ) নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। অল্পের জন্য রক্ষা পায় বাংলাদেশ দলের সদস্যরা। ঘটনার প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ দলের সিরিজের বাকি খেলাগুলো বাতিল করে খেলোয়াড়দের দেশে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এমন বিভীষিকাময় ঘটনার সাক্ষী হয়ে দেশে ফেরার জন্য উদগ্রীব হয়েছিলেন দলের সিনিয়র সদস্য মুশফিকুর রহীম। বিমানবন্দরে পৌঁছে নিজের একটি ছবি আপলোড করে তিনি লিখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ! শেষ পর্যন্ত বাড়ি যাওয়ার সময় হয়েছে।’

sheikh mujib 2020