আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 29 মিনিট আগে

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে নাটকীয়ভাবে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। শ্রীলঙ্কাকে জবাবটা ওয়ানডে সিরিজেই দিল প্রোটিয়ারা। হোয়াইটওয়াশের বদলে লঙ্কানদের হোয়াইটওয়াশ করেছে স্বাগতিক শিবির। শনিবার পঞ্চম ও শেষ ওয়ানডেতেও শ্রীলঙ্কাকে গুঁড়িয়ে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

again south africa beat sri lanka

কেপ টাউনে ডি/এল পদ্ধতিতে ৪১ রানে জিতেছে ফ্যাফ ডু প্লেসির দল। আগে ব্যাট করতে নেমে রাবাদা-তাহিরদের তোপে ২২৫ রানে গুটিয়ে গেছে শ্রীলঙ্কা। জবাব দিতে নেমে ২৮ ওভারে দুই উইকেটে ১৩৫ রান করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপরই শুরু হয় ফ্লাডলাইট বিভ্রাট।

বল আর মাঠেই গড়ায়নি। ডি/এল পদ্ধতিতে দেখা যায় ২৮ ওভারে প্রোটিয়াদের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৯৫ রান। যা অনেক আগেই তারা পেরিয়ে গেছে। আগামী ১৯ মার্চ এই মাঠেই শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

গতকাল টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ১৪ রানে দুই উইকেট খুইয়ে বসে লঙ্কানরা। পরে মিডল অর্ডারের ব্যাটিং দৃঢ়তায় কোনোরকম লড়াইয়ের পুঁজি পায় তারা। সর্বোচ্চ ৫৬ রান করেছেন কুশল মেন্ডিস। ৩৩ রান এসেছে প্রিয়ামাল পেরেরার ব্যাট থেকে। এ ছাড়া অ্যাঞ্জেলো পেরেরা ৩১, ইসুরু উদানা ৩২, ওসাদা ফার্নান্দো ২২ রান করেছেন।

প্রোটিয়াদের পক্ষে সর্বোচ্চ তিন উইকেট নিয়েছেন কাগিসো রাবাদা। দুটি করে শিকার অ্যানরিচ নর্তজে ও ইমরান তাহিরের। লুঙ্গি এনগিডি ও অ্যান্ডিলে ফেলুখায়ো ঝুলিতে পুরেছেন একটি করে উইকেট। তাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টাই দক্ষিণ আফ্রিকার লক্ষ্যটা নাগালে রেখেছিল।

অথচ ম্যাচ সেরার স্বীকৃতি পাননি কোনো বোলার। ৬৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরা হয়েছেন ওপেনার এইডেন মার্করাম। তার সঙ্গী ফন ডার ডুসেন ২৮ রানে অজেয় ছিলেন। অধিনায়ক ডু প্লেসি ফিরেছেন ২৪ রানে। এ ছাড়া ছয় রান করেছেন ওপেনার কুইন্টন ডি কক। তবে আগের ম্যাচগুলোতে ব্যাট হাতে রানের বন্যা বইয়ে দিয়ে সিরিজি সেরা ডি ককই হয়েছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ৪৯.৩ ওভার, ২২৫
দক্ষিণ আফ্রিকা: (২৮ ওভারে লক্ষ্য ৯৫) ২৮ ওভারে ১৩৫/২
ফল: ডি/এল পদ্ধতিতে ৪১ রানে জয়ী দক্ষিণ আফ্রিকা

ম্যাচ সেরা: এইডেন মার্করাম
সিরিজ সেরা: কুইন্টন ডি কক
সিরিজ: দক্ষিণ আফ্রিকা ৫-০ ব্যবধানে জয়ী