advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

নিউজিল্যান্ড সফর দুঃস্বপ্ন উপহার দিয়েছে বাংলাদেশকে। ওয়ানডে সিরিজে হতে হয়েছে হোয়াইটওয়াশ। টেস্ট সিরিজেও একই পরিণতি হতে যাচ্ছিল টাইগারদের। কিন্তু ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট শুরুর আগের দিন শহরের দুটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার কারণে আর বল মাঠে গড়ায়নি। দুই দেশের বোর্ডের আলোচনা শেষে তৃতীয় ও শেষ টেস্টটি বাতিল হয়ে যায়। ভাগ্যক্রমে সন্ত্রাসী হামলার মুখে পড়েনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

mohammad mithun bangadeshi cricketer

সেই দুঃস্মৃতি নিয়ে কোনোরকম দেশে ফিরে এসেছে টাইগাররা। ক্রাইস্টচার্চ ট্রাজেডির কারণে অনেকটাই আড়ালে চলে গেছে বাংলাদেশ দলের ব্যর্থতা। পুরো সফরে ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স শুধু দুই-একজনেরটাই উল্লেখযোগ্য। তাদেরই একজন মোহাম্মদ মিঠুন। ২ ম্যাচে ৫৯.৫০ গড়ে করেছেন ১১৯ রান। দুটি ম্যাচে রান করেছেন ৫৭ ও ৬২।

মিঠুন তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচটা খেলতে পারেননি চোটের কারণে। ওয়ানডে সিরিজে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ধবলধোলাই হওয়ায় মিঠুনকে তাই কাঠগড়ায় তোলার উপায় নেই। তবু নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে খুশি নন মিঠুন। তার আফসোস হাফসেঞ্চুরি দুটির একটিকেও সেঞ্চুরিতে রূপ দিতে না পারার।

আজ আক্ষেপের সুরেই তিনি বলেছেন, ‘ওখানে ভালো খেলা আমার দায়িত্ব ছিল। সেটি পুরোপুরি পালন করতে পারিনি। দুটি ইনিংসই আরও বড় করা যেত। ওই ইনিংস আমার মধ্যে কোনো পরিবর্তন এনেছে কি না জানি না। প্রতিটি ম্যাচেই আসলে চেষ্টা করি।’

একই ভুলের পুনরাবৃত্তি ভবিষ্যতে করবেন না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মিঠুন। তিনি বলেছেন, ‘কোনো ব্যাটসম্যানই দুই অংকে থাকতে চায় না, সবাই চায় তিন অংকে পৌঁছাতে। একটা ইনিংস ৫০ রানে শেষ হয়ে গেলে সেটি দলের জন্য যথেষ্ট নয়। তিন অংকে নিয়ে যেতে পারলে দলের লাভ, আমারও লাভ। কিন্তু সব সময় হয় না। সামনে চেষ্টা করব।’

sheikh mujib 2020