advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 01 মিনিট আগে

ভুল করে স্কোরকার্ডকে দুইয়ের ঘরের নামতা মনে হতে পারতো যে কারও! কারণ পুরো স্কোরবোর্ড জুড়ে শুধু যে দুইয়ের ছড়াছড়ি। ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ৫৪ নম্বর ম্যাচে আজ প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলো বিকেএসপি। নেমেই ৫০ রানে গুটিয়ে গেছে দলটি।

al amin hossain bangladesh

পারভেজ হোসেন ইমনের ৩৭ বলে ১৫ রানের ইনিংসটিই বিকেএসপির পক্ষে সর্বোচ্চ! শুধু সর্বোচ্চই নয়, দুই অঙ্কের কোটা পেরোনো একমাত্র ইনিংসও।

এর চেয়েও বড় আশ্চর্য হলো বিকেএসপি ব্যাটিং করেছে পাক্কা ২২ ওভার। অর্থাৎ ১৩২ বল খেলে মাত্র ৫০ রান তুলে গুটিয়ে গেছেন বিকেএসপির ব্যাটসম্যানরা! আশ্চর্যই বটে। ২২২ রান তুলেও ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত ১৭২ রানে জিতেছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে বিকেএসপিকে আজ লজ্জায় ফেলার বড় কারিগর আল-আমিন হোসেন। অনেকদিন জাতীয় দলের বাইরে থাকা এই পেসার বল হাতে আজ রীতিমতো ঝড় তুলেছিলেন। আট ওভার বোলিং করে মাত্র ২০ রান খরচায় পাঁচ উইকেট তুলে নিয়েছেন। তার আট ওভারের মধ্যে মেডেনই ছিল তিনটি।

তার সঙ্গে দারুণ তাল মিলিয়েছেন প্রাইম ব্যাংকের অপর বোলার নাঈম হাসান, আব্দুর রাজ্জাকরাও। নাঈম চার ওভারে ৬ রান দিয়ে নিয়েছেন দুই উইকেট। অভিজ্ঞ আব্দুর রাজ্জাক এক ওভার বোলিং করে কোনো রান খরচ না করে নিয়েছেন এক উইকেট।

এর আগে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ওই ২২২ রান তোলে প্রাইম ব্যাংক। দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৯২ রান করেছেন অভিমান্যু ইশারান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫০ রান এসেছে নাহিদুল হাসানের ব্যাট থেকে।

sheikh mujib 2020