advertisement
আপনি দেখছেন

মোহাম্মদ হাসনাইনের উত্থান সদ্য গত হওয়া পাকিস্তান সুপার লিগ, পিএসএলে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে বড় তারকাই বনে গেছেন। পেয়ে গেছেন ‘নতুন শোয়েব আখতার’ উপমা। এই উপমাই হাসনাইনকে রাতারাতি তারকা বানিয়ে দিতে বড় ভুমিকা রেখেছে।

shoaib hasnain

বোলিং স্ট্যাইল আর গতির কারণে শুরু থেকেই নতুন শোয়েব আখতার বলা হচ্ছে পাকিস্তানি তরুণকে। নিয়মিত ১৪৪-৪৫ বেগে বোলিং করতে পারেন। পাকিস্তানের হয়ে ইতোমধ্যে অভিষেকও হয়ে গেছে। কেউ কেউ মনে করছেন, হাসনাইনকে নিয়েই ইংল্যান্ডে ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলতে যাবে পাকিস্তান।

যদি তাই হয় তবে বিশ্বকাপের আগে গুরুত্বপূর্ণ কিছু পরামর্শ পেয়ে গেলেন তরুণ হাসনাইন। যার সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে অর্থাৎ সেই গতি তারকা শোয়েব আখতারের কাছ থেকেই পরামর্শ পেয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে হাসনাইনকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন শোয়েব। পাশাপাশি বলেছেন, ‘ও পিএসএল খেলে প্রচারে এসেছে। ফলে ওর মাথায় টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট গেঁথে গেছে। তবে টি-টোয়েন্টি আর ওয়ানডে কিন্তু এক নয়। এর ফারাক বুঝতে হবে। আমি যখন খেলতাম তখন ওয়ানডে আর টেস্ট নিয়ে ভাবতে হতো। এখন পেসারদের টি-টোয়েন্টি খেলার জন্যও আলাদা বৈশিষ্ট তৈরি করতে হয়। হাসনাইনকেও তাই করতে হবে।’

শোয়েব হাসনাইনকে উদ্দেশ্য করে আরো বলেন, ‘ওয়ানডেতে তার বোলিং দেখে মনে হচ্ছে টি-টোয়েন্টি চার ওভারের স্পেল মাথায় রেখে বোলিং করছে। দীর্ঘদিন কোনো ফরম্যাটে খেললে এই সমস্যা হয়। এটা থেকে বের হয়ে আসতে হবে।’