advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

ভারতের অধিনায়ক হওয়ার পর অল্প সময়ের মধ্যে কতো সাফল্যই না বিরাট কোহলির পায়ে লুটেছে। কিন্তু আইপিএল এলেই যেন পুরোপুরি ব্যর্থ! ২০১৩ সাল থেকে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন কোহলি। এখন অবধি দলটিকে শিরোপা এনে দিতে পারেননি। কোহলি ছাড়াও ভিলিয়ার্স, স্টোয়নিসদের মতো তারকারা থাকলেও পরাজয়ের বৃত্ত ভাঙ্গতে পারছে না এই 'অভিশপ্ত' বেঙ্গালুরু।

shreyas iyer ipl 2019 bengaluru

কোহলি এবার যে লজ্জা পেলেন সেটা সারা জীবনেও ভোলার কথা নয়। ১২তম আইপিএলে নিজেদের প্রথম ছয় ম্যাচের সবকটি হেরে টুর্নামেন্ট থেকে কার্যত বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে বিরাট কোহলির বেঙ্গালুরুর। এরপর নিজেদের সককটা ম্যাচ জিতলেও কোহলিদের পরের রাউন্ডে যাওয়ার সম্ভাবনা নির্ভর করছে অনেক 'যদি' এবং 'কিন্তু'র ওপর। 

২০১৩ সাল থেকে কোহলির হাতে প্রতি বছরই বিগ বাজেটের দল তুলে দিযেছে ফ্র্যাঞ্চাইজটি। প্রথম আসরে অবশ্য দলকে ফাইনাল পর্যন্ত নিতে পেরেছিলেন। এরপর সমর্থকদের শুধু হতাশাই উপহার দিতে পেরেছে তার দল। ২০১৮ সালে ১৪ ম্যাচের মধ্যে মাত্র ৬টিতে জিতে সবার নিচে থেকে আইপিএল শেষ করেছিল কোহলির বেঙ্গালুরু। কে ভেবেছিল, এবার তার চেয়েও খারাপ অবস্থায় পড়তে হবে!

এবারের আইপিএলে শুরুর দিকে কোহলি নিজে রান পাননি, দলও জিতেনি। গত ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে রান পেয়েছিলেন কোহলি। দলও দুইশ ছাড়িয়েছিল। কিন্তু আন্দ্রে রাসেলের অতিমানবীয় ব্যাটিংয়ের কাছে হারতে হয়েছিল। তারপর শেষ চারের সম্ভাবনা টিকিয়ে রাখতে আজ জয়ের বিকল্প ছিল না। প্রতিপক্ষ দিল্লি ক্যাপিটালস ছিল বলে জয়ের পথটা তেমন কঠিনও ছিল না। কিন্তু আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলা বেঙ্গালুরু দিল্লির বিপক্ষে চলতি আসরের ছয় নম্বর ম্যাচটা খেলতে নেমে ষষ্ঠ হার নিয়ে মাঠ ছাড়লো।

এম চেন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাটিং করে ১৪৯ রানের সংগ্রহ গড়েছিল কোহলির দল। সংগ্রহটা যে মোটেও চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো নয় সেটা পরে কোহলির চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিল দিল্লির তরুণ ব্যাটসম্যানরা। শুরুটা দারুণ করেছিলেন পৃথ্বীশ (২২ বলে ২৮)। তিনে নেমে বেঙ্গালুরুকে বিদায় করার আসল কাজটা করেছেন দিল্লির অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার। ৫০ বলে ৮ চার ২টি ছয়ে ৬৭ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে দিল্লিকে দারুণ জয় এনে দিয়েছেন তিনি।

শেষ দিকে দুই রানে তিন উইকেট হারালেও ১৮.৫ ওভারে ছয় উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য ১৫২ রান তুলে ফেলে দিল্লি। আইপিএল ঠিকমতো জমে না উঠতেই কোহলিদের বিদায় ঘণ্টা প্রায় বেজে গেল তাতেই।

sheikh mujib 2020