আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 29 মিনিট আগে

নিজেকে ভাগ্যবান ভাবতেই পারেন তিনি। আহামরি পারফরম্যান্স কখনোই দেখাতে পারেননি, কিন্তু নিলাম টেবিলে বরাবরই বিস্মিত করেছেন। বলা হচ্ছে ভারতীয় পেসার জয়দেব উনাদকাটের কথা।

jaydev unadkat ipl 2019

ভারতের হয়ে উনাদকাট টেস্ট খেলেছেন মাত্র একটি, ওয়ানডে সাতটি আর টি-টোয়েন্টি ১০টি। সাত ওয়ানডেতে উইকেট পেয়েছেন আটটি, টি-টোয়েন্টিতে উইকেট সংখ্যা ১৪। আর টেস্টে উইকেটেরই দেখা পাননি।

আইপিএলেও যে আহামরি কিছু করে দেখিয়েছেন তেমনটাও নয়। কিন্তু ২০১৮ সালের আইপিএলের জন্য এই উনাদকাটকেই ১১ কোটি রুপিতে কিনেছিল রাজস্থান রয়্যালস।

প্লেয়ার ড্রাফট থেকে বিক্রি হওয়া সবচেয়ে দামি ভারতীয় ক্রিকেটার ছিলেন তিনি। কিন্তু পারফরম্যান্স ছিল একেবারেই সাদামাটা। ওই মৌসুম শেষে উনাদকাটকে ছেড়ে দিয়েছিল রাজস্থান। কিন্তু পরের প্লেয়ার ড্রাফট থেকে অর্থাৎ ২০১৯ সালের আইপিএলের জন্য সেই উনাদকাটকেই আবার ৮ কোটি ৪০ লাখ রুপিতে কিনে নেয় রাজস্থান। বাংলাদেশি টাকায় অঙ্কটা দশ কোটিরও বেশি।

অর্থাৎ দামের দিক দিয়ে খুব একটা অবনমন হয়নি উনাদকাটের, ১১ কোটি থেকে ৮.৪০ কোটি।  দলও পরিবর্তন হয়নি। তবে পারফরম্যান্সের উন্নতি একেবারেই হয়নি। রাজস্থানের সেরা একাদশে এখন সুযোগই মিলছে না উনাদকাটের। চলতি আইপিএলে এখন পর্যন্ত ছয় ম্যাচ খেলেছে রাজস্থান, উনাদকাট সুযোগ পেয়েছেন চার ম্যাচে।

এই চার ম্যাচে তার পারফরম্যান্স একেবারেই যাচ্ছেতাই। তিন উইকেট পেলেও উনাদকাট ওভারপ্রতি রান খরচ করেছেন ১১.৩০। মোট ১৩ ওভার বোলিং করে ১৪৭ রান দিয়েছেন। অর্থাৎ প্রতি উইকেটের জন্য ৪৯ রান খরচ করতে হয়েছে তাকে। দশ কোটি দামের বোলারের এই হাল!