advertisement
আপনি দেখছেন

পরপর তিন বলে তিন উইকেট। তাও একেবারে জীবনের প্রথম ম্যাচে! যে কীর্তি গত ৪৩ বছরে কেউ করতে পারেনি, তা-ই করে দেখিয়েছেন তাইজুল ইসলাম। অভিষেকেই হ্যাটট্রিক করার পর মাঠেই সতীর্থদের কাছে জেনেছেন, বিশ্ব রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন তিনি।

গত কয়েকটা মাস ধরেই চোখ ধাঁধানো পারফর্ম করছিলেন তাইজুল ইসলাম। যে পারফর্ম তাকে নিয়ে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজে। সাদা পোষাকে হয়ে গেছে অভিষেক। সেখানেও সুযোগ পেয়েই চমকে দিয়েছেন। দলের হয়ে করেছেন সেরা পারফর্ম।

তারপর থেকেই অপেক্ষায় ছিলেন ওয়ানডেতে সুযোগ পাওয়ার। এর আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে টেস্ট সিরিজেও ছিলেন দুর্দান্ত। এক ইনিংসে দেশের হয়ে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড গড়েছেন। তারপরও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে তাকে বিবেচনা করেননি নির্বাচকরা। তবুও দমে যাননি তাইজুল।

সুযোগ পেয়েই দেখিয়ে দিয়েছেন নিজের কার্যকরিতা। ৪৩ বছরের ইতিহাস কাঁপিয়ে দিয়ে প্রথম ম্যাচেই করেছেন হ্যাটট্রিক! দেশকে এনে দিয়েছেন গর্ব করার এক রেকর্ড।

ম্যাচ শেষে সংবাদ মাধ্যমের সাথে কথা বলার সময় তাইজুল জানান, বিশ্ব রেকর্ডের খবর মাঠেই জেনেছিলেন তিনি। তাইজুল জানান, দুই বলে দুই উইকেট পাওয়ার পরও তৃতীয় বলে উইকেটের আশা ছিলো না তার। উদ্দেশ্য ছিলো কেবল, স্ট্যাম্পে বল রাখা।

উদ্দেশ্য ঠিকই রেখেছিলেন তাইজুল। এ কারণেই করে ফেলেছেন নিজের প্রথম ম্যাচে দুনিয়া কাঁপানো কীর্তি। 

sheikh mujib 2020