advertisement
আপনি পড়ছেন

বিশ্বকাপ মানেই খেলোয়াড়দের উপর পাহাড়সমান চাপ। কোনো দল যদি আবার একটু ভালো হয়, তাহলে সে দলের খেলোয়াড়দের ভুলে যেতে অন্য সব কিছু। জান-প্রাণ দিয়ে নামতে হয় বিশ্ব জয়ের যুদ্ধে। কিন্তু যুদ্ধটা এতোই সোজা? চাইলেই কি মুঠোয় নেয়া যায় বিশ্বকাপটা? যায় না। সুতরাং নির্ভার থেকে নিজেদের খেলাটা খেলে যাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। বিশ্বকাপ, তো কী হয়েছে; এভাবে ভাবলেই ভালো!

saleh ahmad shawon gazi

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচের আগে সোমবার কক্সবাজারে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন সালেহ আহমেদ শাওন গাজী। বাংলাদেশ দলের এই স্পিনার জানান, বিশ্বকাপ চলছে বলে বাড়তি কোনো চাপ তারা নিচ্ছেন না। বরং দুই দেশের সিরিজ খেলা হলে, পরিস্থিতি যেমন থাকে; তারা চেষ্টা করছেন সেভাবেই এগোতে।

শাওন বলেন, ‘আমরা দ্বিদেশীয় সিরিজ যেভাবে খেলি, এখনো সেভাবেই খেলছি। আমাদের কোচ, অধিনায়ক ও সহঅধিনায়ক আমাদের এভাবেই বলেছেন। বিশ্বকাপ বলে আলাদা কোনো চাপ-টাপ আমাদের মধ্যে নেই। আমরা কেবল নিজেদের খেলাটাই খেলে যেতে চাই।’

বিশ্বকাপ জিততে হলে মোট ছয়টি ম্যাচ খেলতে হবে বাংলাদেশকে। তাতে জিততে হবে অন্তত পাঁচটি ম্যাচ। গ্রুপ পর্বের একটি ম্যাচ না জিতলেও হবে। কিন্তু দুর্দান্ত দলটা একটা ম্যাচ কেনো ছাড়বে! শাওন বলেন, ‘আমরা মোট ছয় ম্যাচকে তিন ম্যাচের দুটি সিরিজে ভাগ করেছি। তিনটি গ্রুপ পর্বে এবং তিনটি লিগ পর্বে।’

নির্ভার হয়ে খেলার মন্ত্রটা শেষ পর্যন্ত স্বপ্ন পূরণের পথে বাংলাদেশকে কতোটা এগিয়ে দিবে- সেটা দেখার জন্য আপাতত অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই।

 
আপনি আরো পড়তে পারেন

সাইফের প্রতি ধীর ব্যাটিংয়ের নির্দেশ ছিলো

নিষিদ্ধ সঞ্জিত, বদলি মোসাব্বেক

নামিবিয়ার কাছে হেরে বাদ দক্ষিণ আফ্রিকা