advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 12 মিনিট আগে

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে আর মাত্র একজন ইনজুরিতে আক্রান্ত হলে পানি টানারও লোক থাকবে না! ইডেনে গোলাপি বলের টেস্টে শুরুর দিনেই লিটন দাস ও নাইম হাসান মাথায় আঘাত পেয়ে ছিঁটকে গেছেন ম্যাচের বাইরে। চোট সমস্যায় ৪ জন দলের বাইরে থাকায় এখন ফিট আছেন মাত্র ১২ জন। তাতেই ঘটেছে এ বিপত্তি।

bangladesh physioমিথুনের হেমমেটে বল লাগলে চোট পরীক্ষা করছেন ফিজিও

টেস্ট দলে ১৬ জন নিয়ে ভারত সফরে যায় বাংলাদেশ। নাগপুরে টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচের আগে কুঁচকির চোটে পড়ে মোসাদ্দেক হোসেন দেশে ফিরে আসেন। ফলে টেস্টের স্কোয়াড দাঁড়ায় ১৫ জনের। বিকল্প ওপেনার সাইফ হাসানও ইন্দোরে টেস্ট চলাকালীন চোট পান। বুধবার ইডেনে অনুশীলনের সময় নিশ্চিত হয় তিনিও টেস্ট খেলতে পারছেন না। স্কোয়াড হয়ে যায় ১৪ জনের।

গতকাল দিবা-রাত্রির টেস্টের প্রথম দিনে মোহাম্মদ শামির বাউন্সারে চোট পান লিটন-নাইম। চিকিৎসকরা লিটন-নাইমকে বিশ্রাম নিতে বলায় স্কোয়াড দাঁড়িয়েছে ১২ জনে। ‘কনকাসন সাব’ হিসেবে নামেন মেহেদি হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম। এর মধ্যে উইকেটকিপারের বদলি হিসেবে মাঠে নামায় মেহেদি বল করতে পারবেন না। তবে তাইজুল বল করতে পারবেন। বাংলাদেশ স্কোয়াডে একাদশের বাইরে আছেন শুধু মোস্তাফিজুর রহমান।

এখন ম্যাচে থাকা কোনো ক্রিকেটার যদি চোট পান বা কোনও কারণে মাঠের বাইরে আসেন, তখন ফিল্ডিং করার জন্য নামতে হবে মোস্তাফিজকে। তখন মাঠে সতীর্থদের জন্য ড্রেসিংরুম থেকে পানি নিয়ে যাওয়ার জন্য আর কোনও ক্রিকেটারই থাকবে না বাংলাদেশের।

স্কোয়াডে অতিরিক্ত ক্রিকেটার না থাকায় আজ নাজমুল হোসেন শান্তকে কলকাতায় ডেকে পাঠিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। এর আগে ভারতীয় মিডিয়ায় গুঞ্জন উঠেছিলো সৌম্য সরকার যোগ দিচ্ছেন স্কোয়াডে। তবে দ্বিতীয় ইনিংসেও ভালো অবস্থানে নেই বাংলাদেশ। এখন প্রশ্ন হলো শান্ত গিয়ে খেলা দেখতে পারবেন তো!

sheikh mujib 2020