advertisement
আপনি দেখছেন

সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১১ ডিসেম্বর মাঠে গড়াবে বিপিএলের সপ্তম আসর। ওই দিন দুপুরেই মাঠে দেখতে পাওয়ার কথা ছিল ক্যারিবীয়ান তারকা ক্রিস গেইলের। উদ্বোধনী ম্যাচেই যে সিলেট থান্ডারের মুখোমুখী হবে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। প্লেয়ার ড্রাফট থেকে ক্রিস গেইলকে কিনে নিয়েছে চট্টগ্রাম। কিন্তু চট্টগ্রামে নিজের অন্তর্ভূক্ত হওয়া নিয়ে কাল এক বিস্ফোরক এক মন্তব্য করেন গেইল।

chris gayle bplগত মৌসুমে রংপুর রাইডার্সের হয়ে বিপিএল খেলেছেন ক্রিস গেইল- ছবি সংগৃহীত

বিপিএলের প্লেয়ার ড্রাফটে যে তার নাম ছিল এবং তাকে যে একটা দল নিয়েছে, সেটা নাকি জানেন না গেইল। ক্যারিবীয়ান তারকা নিজেই বলেছেন কথাটা। গেইলের এমন মন্তব্যে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠছে ক্রিকেটাঙ্গনে। এর মধ্যে বিসিবির পক্ষ থেকে বলা হলো, সব প্রক্রিয়া মেনে তবেই ড্রাফটে গেইলের নাম রাখা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষীকি উপলক্ষ্যে এবারের বিপিএলের আয়োজক বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, বিসিবি। অন্যান্য আসরের তুলনায় এবার ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক নির্ধারণ করা হয়েছে কম। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামুদ্দিন চৌধুরীর মনে করছেন, এই কারণেও এমন কথা বলতে পারেন গেইল।

গেইলের মন্তব্য নিয়ে জিজ্ঞেসা করা হলে নিজামুদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আমি কোন নির্দিষ্ট প্লেয়ারের ব্যাপারে বলবো না। আন্তর্জাতিক কোন খেলোয়াড়ের নাম যখন ড্রাফটে আসে তখন প্রক্রিয়া মেনেই আসে। প্লেয়ার বা এজেন্ট আগ্রহ দেখালেই কেবল তাদের নাম ড্রাফটে আসে। আপনারা বলার পর আমরা চেক করে নিশ্চিত হয়েছি যে, এটা আসলে প্রক্রিয়া মেনেই করা হয়েছে।’

বিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেন, ‘প্লেয়ারদের এজেন্টদের সঙ্গে যোগাযোগ হচ্ছে। আশা করছি বিষয়টি মীমাংসা হয়ে যাবে। আমি আবারও বলছি একটা প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই নামটা এসেছে। হয়তোবা কিছু আর্থিক বিষয় আছে, কিন্তু এ নিয়ে যেহেতু কোন তথ্য নেই তাই আশা করছি এটা ঠিক হয়ে যাবে।’