advertisement
আপনি দেখছেন

ইনিংস ব্যবধানে হারের দিক দিয়ে এক রেকর্ডের ভাগীদার হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে টানা তিন ম্যাচ বা তারও অধিক ম্যাচে ইনিংস ব্যবধানে জয় পেয়েছে মাত্র ৪টি দল। এর মধ্যে তিনটি দলের সাথেই রয়েছে বাংলাদেশের নাম। তাই দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের তা ভালো না লাগাটাই স্বাভাবিক।

test record bdইনিংস হারের দিক দিয়ে এক অনন্য রেকর্ডের ভাগীদার হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট

সর্বশেষ টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশকে দুটি ম্যাচেই ইনিংস ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত। এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও শেষ দুই টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে জিতেছে তারা। ফলে ইতিহাসের একমাত্র দল হিসেবে টানা চার ম্যাচে ইনিংস ব্যবধানে জয়ের রেকর্ড গড়েছে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট দল।

জনপ্রিয় ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো বলছে, টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে এর আগে শুধুমাত্র অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার টানা তিন ম্যাচ ইনিংস ব্যবধানে জয়ের রেকর্ড ছিল। যার দুটির সঙ্গেই বাংলাদেশের নাম জড়িয়ে আছে। এবার সেই রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেল ভারত।

এর আগে টানা তিন ম্যাচ ইনিংস ব্যবধানে জয়ের ক্ষেত্রে অনন্য নজির স্থাপন করেছিল অস্ট্রেলিয়া। সর্বোচ্চ চারবার তারা এটা করে দেখিয়েছে। ১৯৩১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে, ১৯৩৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে, ১৯৪৬ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এক ম্যাচ ও পরের বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচ জিতেছিল তারা। এরপর ২০০৩ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্ট ও জিম্বাবুয়ে বিপক্ষে এক টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া।

এরপরই রয়েছে ইংল্যান্ড। তারা সর্বোচ্চ তিনবার টানা তিন ম্যাচে ইনিংস ব্যবধানে জয় পেয়েছে। ১৯২৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে, ১৯৫৮ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এবং ২০১০-১১ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কা মিলিয়ে টানা তিন টেস্টে এ রেকর্ড গড়ে ইংল্যান্ড।

১৯৯৯-২০০০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই ম্যাচ ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এক ম্যাচ ইনিংস ব্যবধানে জেতে দক্ষিণ আফ্রিকা। ২০০২ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্ট ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এক টেস্ট ইনিংস ব্যবধানে জয় পায় তারা। ২০০৩ সালে আবারো বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্ট ও পাকিস্তানের বিপক্ষে এক টেস্ট জিতে তৃতীয়বারের মত এই রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা।

প্রসঙ্গত, এখন পর্যন্ত ১১৭টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে ১৩টি জয়, ১৬টি ড্র ও ৮৮টিতে পরাজিত হয়েছে।