advertisement
আপনি দেখছেন

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কার টিম বাসের ওপর বন্দুকহামলার পর থেকে পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেট হয়নি। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) বহু চেষ্টা করে দেশের মাটিতে টি-টোয়েন্টি, ওয়ানডে আয়োজন করলেও টেস্ট খেলতে সম্মত হচ্ছিল না কোন দল। শেষপর্যন্ত সেই শ্রীলঙ্কাই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে সেই আক্ষেপ ঘুচল আজ।

mohammad abbas celebrates a dismissal

১০ বছর ৯ মাস ৯ দিন পর আজ দেশের মাটিতে টেস্ট খেলতে নেমেছে পাকিস্তান। মজার ব্যাপার, আজকের আগে পাকিস্তানের বর্তমান দলের একজন ক্রিকেটারেরও দেশের মাটিতে টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতা ছিল না। অর্থাৎ পাকিস্তানের একাদশের ১১ জনই আজ দেশের মাটিতে প্রথম টেস্ট খেলতে নেমেছিল। পাকিস্তানিদের অন্যরকম এই অভিষেকের দিনটা ভালো কাটেনি শ্রীলঙ্কার।

রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের প্রথম দিনে ২০২ রান তুলতেই পাঁচ উইকেট হারিয়ে ফেলে শ্রীলঙ্কা। প্রথম দিনে খেলা হয়েছে ৬৮.১ ওভার। প্রথম সেশনটা শ্রীলঙ্কার অনুকূলেই ছিল। কোন উইকেট না হারিয়ে ৮৯ রান তুলে ফেলেন দুই ওপেনার দিমুথ কারুনারত্নে (৫৯) ও ওশাডা ফেরনান্দো (৪০)। তবে দ্বিতীয় সেশনে ৪ উইকেট তুলে নেন পাকিস্তানি পেসাররা

শেষ সেশনে পুরো খেলা না হলেও আরও একটা উইকেট তুলে নিয়ে দেশের মাটিতে টেস্ট ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তনটা রাঙিয়ে রেখেছেন পাকিস্তানি বোলাররা। প্রথম দিনে পাকিস্তানের পক্ষে দুই উইকেট পেয়েছেন নাসিম শাহ। একটি করে উইকেট পেয়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি, ওসমান শেনওয়ারি ও মোহাম্মদ আব্বাস।