advertisement
আপনি দেখছেন

শুরু হয়ে গেল বিশেষ টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধু বিপিএল। বাইশ গজে ব্যাট-বলের যুদ্ধে অংশ নেওয়া দলগুলোকে নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের এই পর্বে থাকছে রাজশাহী রয়্যালস। কেমন হলো দলটা? রাজশাহীর সার্বিক বিষয়াদি টোয়েন্টিফোর লাইভ নিউজ পেপারের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-

rajshahi royalsরাজশাহী রয়্যালস

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। প্রস্তুতির জন্য যে কোনো ক্রিকেটার বিগ ব্যাশে খেলতে যাবেন এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ান ঘরোয়া টুর্নামেন্ট নয়, আন্দ্রে রাসেল বেছে নিয়েছেন বঙ্গবন্ধু বিপিএলকে। খেলতে এসেছেন রাজশাহী রয়্যালসের হয়ে। ক্যারিবীয় অলরাউন্ডারের বাংলাদেশ প্রীতি বোঝাই যাচ্ছে।

বিপিএলের আগের আসরগুলোতে খুব শক্তিশালী দল গঠন করতে পারেনি রাজশাহীর কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি। বড় কোনো সাফল্যও পায়নি তারা। তুলনামূলকভাবে এবারের বিশেষ টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধু বিপিএলে শিরোপা প্রত্যাশি দল গড়েছে তারা। তাদের সবচেয়ে বড় শক্তি অধিনায়ক রাসেল।

রাজশাহী রয়্যালস মনে করছে এবারের আসরে সবচেয়ে শক্তিশালী দল তাদেরই। দলটির প্রধান কোচ ওয়াইজ শাহ। তার মতে শিরোপা জয়ে সামর্থ্য তাদের আছে। ইংলিশ কোচের দাবি করলেন রাজশাহী রয়্যালস এই মৌসুমে সবচেয়ে ভারসাম্যপূর্ণ দল। তার দাবিটা অমূলক নয়। দেশি-বিদেশিদের দারুণ এক সমণ্বয় করা হয়েছে দলটাতে।

টপ অর্ডারে আছেন লিটন দাস, হজরতউল্লাহ জাজাইর মতো বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান। দেশীয় তিনজন অলরাউন্ডার দলে টেনেছে তারা- অলোক কাপালি ও ফরহাদ রেজা। আছেন আফিফ হোসেন ধ্রুবর মতো তরুণ ক্রিকেটার। তিনজন অভিজ্ঞ বিদেশি অলরাউন্ডারও আছে তাদের। রাসেল, শোয়েব মালিক ও রবি বোপারাদের নিয়ে গড়া দলটা শিরোপার দাবি রাখে।

ব্যাটিং বিভাগ নিয়ে কোনো সংশয় নেই। বোলিং ইউনিটে আছেন দুই পেস তারকা আবু জায়েদ রাহি ও কামরুল হাসান রাব্বি। আক্রমণে তাদের সঙ্গী পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ ইরফান। স্পিন বিভাগে আছেন জাতীয় দলের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার তাইজুল ইসলাম। তার সঙ্গী কাপালি ও তরুণ স্পিনার মিনহাজুল আবেদিন আফ্রিদি। বিদেশিদের মধ্যে আছেন পাকিস্তানি স্পিনার মোহাম্মদ নাওয়াজ।

ইতোপূর্বে দুরন্ত রাজশাহী ও রাজশাহী কিংস নামে বিপিএলে অংশ নিয়েছে দলটি। পাঁচ আসরে অংশ নিয়ে প্রথম তিনবার অন্তত প্লে-অফ পর্যণ্ত উঠেছে তারা। ২০১৬ সালে ফাইনালেও উঠেছিল তারা। কিন্তু ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় তাদের। পরের দুই আসরে শেষ চারেই উঠতে পারেনি তারা। সেই ব্যর্থতা ঘোচাতে এবার মরিয়া হয়ে মাঠে নামছে রাজশাহী রয়্যালস।

অধিনায়ক: আন্দ্রে রাসেল

প্রধান কোচ: ওয়াইজ শাহ

পরিচালনায়: এতদিন এনায়েত সিরিজ ছিলেন। তিনি চলে গেছেন রংপুরে। আপাতত ফাঁকা আছে রাজশাহী টিম ডিরেক্টর পদ।

সাফল্য: ফাইনাল (২০১৬)

পুরনো নাম: দুরন্ত রাহশাহী, রাজশাহী কিংস

পৃষ্ঠপোষক: আইপিসি

রাজশাহী রয়্যালস স্কোয়াড:

দেশি: লিটন দাশ, আফিফ হোসেন ধ্রুব্, আবু জায়েদ রাহি, ফরহাদ রেজা, তাইজুল ইসলাম, অলক কাপালি, কামরুল ইসলাম রাব্বি, ইরফান শুক্কুর, মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি ও নাহিদুল ইসলাম।

বিদেশি: আন্দ্রে রাসেল, রবি বোপারা, হজরতউল্লাহ জাজাই, মোহাম্মদ নাওয়াজ, মোহাম্মদ ইরফান, শোয়েব মালিক।