advertisement
আপনি দেখছেন

আরো একটা সেরার স্বীকৃতি পেলেন বেন স্টোকস। ব্রিটিশ ব্রডকাস্টার কর্পোরেশনের (বিসিবি) বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ নির্বাচিত হয়েছেন ইংলিশ এই অলরাউন্ডার। রোববার স্কটল্যান্ডের অ্যাবারডিনে স্টোকসের হাতে বর্ষসেরার পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

ben stokes 2019

গত মৌসুমটা স্বপ্নের মতো কাটিয়েছেন স্টোকস। ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ের রূপকথার নায়ক ছিলেন নিউজিল্যান্ডের বংশোদ্ভূত এই তারকা। বিশ্বকাপ শেষ ঘরের মাঠে অ্যাশেজ সিরিজেও দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে অ্যাশেজ সিরিজে শেষাবধি ড্র করে ইংলিশরা।

ব্যক্তিগত নৈপুণ্যের সুবাদে ইংল্যান্ড ও যুক্তরাজ্যের প্রায়সব ব্যক্তিগত লড়াইয়ে বাজিমাত করেছেন স্টোকস। এবার তার হাতে উঠল বিবিসি বর্ষসেরার ট্রফি। এই লড়াইয়ে স্টোকস হারিয়েছেন ফর্মুলা ওয়ান তারকা লুইস হ্যামিল্টন ও দৌড়বিদ আশার-স্মিথকে।

বিবিসির পাঠকদের ভোটে নির্বাচন করা হয়েছে সেরা ক্রীড়া ব্যক্তিত্বকে। অ্যাবারডিনের আলো ঝলমল রাতে আরো সাতটি ক্যাটগরিতে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে ক্রীড়াবিদদের। কিন্তু সব ছাপিয়ে পাদ প্রদীপে থাকলেন শুধুই স্টোকস।

ঘরের মাঠে আইসিসি বিশ্বকাপ জেতা ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল বর্ষসেরা দল নির্বাচিত হয়েছে। সেরা মুহূর্ত নির্বাচন করা হয়েছে লর্ডসে বিশ্বকাপের ফাইনালে সুপার ওভারে জস বাটলারের করা রান আউট। সেদিন বাটলারের থ্রোতে স্ট্যাম্প ভাঙে মার্টিন গাপটিলের। তাতেই বিশ্বকাপ নিশ্চিত হয়ে ইংলিশদের।

বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে ৪৬৫ এবং বল হাতে সাত উইকেট নিয়েছিলেন স্টোকস। পরে অ্যাশেজ সিরিজে তার ব্যাট থেকে দুই সেঞ্চুরিতে এসেছে ৪৪১ রান। সঙ্গে আটটি উইকেট। রাজসিক এই পারফরম্যান্সের কারণেই চার বছর পর বিবিসির সেরা স্বীকৃতি উঠল কোনো ক্রিকেটারের হাতে।

২০১৫ সালে সবশেষ অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ ক্রিকেটার হিসেবে বিবিসির সেরা ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব নির্বাচিত হয়েছিলেন। ওই বছর অস্ট্রেলিয়াকে অ্যাশেজ সিরিজে হারিয়েছিল ইংল্যান্ড। যার আসল নায়ক ছিলেন ফ্লিনটফ। সবমিলিয়ে ১৯৫৪ সাল থেকে এই পুরস্কার চালু হওয়ার পর মাত্র পাঁচজন ক্রিকেটার সেরা হয়েছেন।