advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর ইস্যুতে নিরাপত্তা নিয়ে কথা হচ্ছে অনেকদিন ধরেই। অনেক ফিসফাসের পর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসবি) পাকিস্তানকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিয়েছে, শুধু টি-টোয়েন্টি খেলতে দেশটিতে যেতে চায় তারা। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ কোন নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে বিসিবি। পাকিস্তান যে এই প্রস্তাবে রাজি হবে না তার ইঙ্গিত ইতোমধ্যেই দিয়ে দিয়েছে। এসবের মধ্যে শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ কারুনারত্নে বললেন, পাকিস্তান ক্রিকেট খেলার জন্য শতভাগ নিরাপদ।

 dimuth karunaratne practice

লঙ্কান দলপতি বলেন, ‘আমি বাংলাদেশকে বলব না যে তাদের পাকিস্তানে আসা উচিত কিনা। তবে এটা বলব, আমরা এখানে নিরাপদ বোধ করছি। এখানে যারা নিরাপত্তার দায়িত্বে আছেন তারা শতভাগের চেয়েও বেশি দিচ্ছেন। আমরা বাইরে খেতেও গেলাম। আমি বলতে পারি, পাকিস্তান এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য নিরাপদ।’

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কার টিম বাসের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলতে অনাগ্রহ দেখিয়ে আসছে বিদেশি দলগুলো। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) বহু চেষ্টা করে দেশটির মাটিতে কয়েকটা সিরিজ আয়োজন করতে পেরেছে। শ্রীলঙ্কা এই মুহূর্তে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলছে পাকিস্তানে রয়েছে। সিরিজ চলাকালেই কথাগুলো বললেন কারুনারত্নে।

টেস্ট সিরিজের আগে পাকিস্তান থেকে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে এসেছে শ্রীলঙ্কা। তবে সেই সিরিজে অংশ নিয়েছিল শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় সারির দল। শ্রীলঙ্কা দলে নিয়মিত দশজন ক্রিকেটার রঙিন পোশাকের ওই সিরিজ থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন। কারুনারত্নে বললেন, তখন নাম প্রত্যাহার করে নিয়ে ভুলই করেছেন তিনি।

লঙ্কান দলপতি বলেন, ‘সংক্ষিপ্ত সংস্করণে এখানে সিরিজ খেলতে না আসার কারণে আমার দুঃখ হচ্ছে। সে সময়টা আসলে কঠিন ছিল। আমি আসলে পাকিস্তানের ব্যাপারে খবরে ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক কিছু পড়েছি। কিছুই ইতিবাচক ছিল না। কিন্তু যারা খেলে গেছে তারা সবাই ইতিবাচক কথা বলেছে। এই কারণেই সিনিয়ররা টেস্ট খেলতে এখানে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন মনে হচ্ছে, সংক্ষিপ্ত সংস্করণে সিরিজ খেলতে না এসে ভুল করেছি।’