advertisement
আপনি দেখছেন

প্রায় দশ বছর পর করাচি জাতীয় স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক পর্যায়ের টেস্ট ম্যাচ আয়োজিত হচ্ছে। এ নিয়ে কদিন ধরেই একটা উৎসবমূখর পরিবেশ পাকিস্তানের এই শহরটিতে। তবে আজ ম্যাচের দিন অবশ্য পুরোটা সময় উৎসব করতে পারল না করাচিবাসী। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টের প্রথম দিনটা যে খুব বেশি ভালো কাটল না পাকিস্তানের।

mohammad abbas celebrates a wicket

প্রথমে ব্যাটিং করে দুইশ রানও তুলতে পারেনি পাকিস্তান। তবে পরে বোলিংটা ভালো হয়েছে। ৬৪ রানে শ্রীলঙ্কার তিন উইকেট তুলে নিয়েছে স্বাগতিকরা।

টস জিতে নিজেদের দর্শকদের সামনে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুটাই ভালো করতে পারেনি পাকিস্তান। দলীয় ১০ রানের মাথায় ফিরে যান শান মাসুদ (৫) ও আজহার আলী (০)। এরপর অবশ্য প্রতিরোধ গড়তে পেরেছেন বাবর আজম, আসাদ শফিকরা। শুরুর ধাক্কার পর বাবর, আসাদ যেভাবে এগুচ্ছিলেন তাতে মনে হচ্ছিল বড় সংগ্রহই বুঝি পেতে যাচ্ছে পাকিস্তান।

কিন্তু এই দুজন ফিরতেই আবারও তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়েছে পাকিস্তানের লোয়ার মিডল ও লোয়ার অর্ডার। ২৪ রানে শেষ ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রানেই গুটিয়ে যায় পাকিস্তান। স্বাগতিকদের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৩ রান করেছেন আসাদ শফিক। ৬০ করেছেন বাবর আজম। এছাড়া দুই অঙ্কের কোটা স্পর্শ করতে পেরেছেন কেবল আবিদ আলি (৩৮)। শ্রীলঙ্কার হয়ে লাথিস এম্বুলডেনিয়া ও লাহিরু কুমারা চারটি করে উইকেট পেয়েছেন।

পরে বোলিংয়ে নেমে শুরুতেই শ্রীলঙ্কান ওপেনার ওশাদা ফেরনান্দোকে ফেরান শাহিন শাহ আফ্রিদি। এরপর অধিনায়ক দিমুথ কারুনারতেœ (২৫) ও কুশল মেন্ডিসকেও (১৩) বেশিদূর এগুতে দেননি মোহাম্মদ আব্বাস। ৩ উইকেটে ৬৪ রান নিয়ে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছে শ্রীলঙ্কা।

sheikh mujib 2020