advertisement
আপনি দেখছেন

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে আরেকটি রান উৎসব দেখল চট্টগ্রামের দর্শকরা। স্বাগতিক চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ও কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের মধ্যকার ম্যাচে দুদল মিলে রান তুলেছে ৪৬০। রান উৎসবের ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত ১৬ রানে জিতেছে চট্টগ্রাম।

imrul 62 bpl

চট্টগ্রামের ২৩৮ রানের রেকর্ড সংগ্রহের জবাব দিতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ২২২ রানে থেমেছে কুমিল্লার ইনিংস। কুমিল্লার হয়ে ৩৮ বলে ৭ চার ৫ ছয়ে ৮৪ রান করেন ডেভিড মালান। এছাড়া দাসুন শানাকা ২১ বলে ৩৭ ও আবু হায়দার রনি ১০ বলে ২৮ রান করেন।

চট্টগ্রামের হয়ে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন তরুণ মেহেদি হাসান রানা। প্রথম তিন ওভারে ৬ রান দেওয়া রানা তুলে নিয়েছেন চার উইকেট।

প্রথম ইনিংস:

টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে রেকর্ড সংগ্রহ গড়ে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ইমরুল কায়েস, চ্যাডউইক ওয়ালটন, নুরুল হাসানদের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ২৩৮ রান তোলে স্বাগতিকরা। চলতি বিপিএলের সর্বোচ্চ স্কোর এটি। বিপিএল ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

ইনজুরিতে থাকা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অনুপস্থিতিতে চট্টগ্রামকে নেতৃত্ব নেওয়া ইমরুল তিনে নেমে মাত্র ৪১ বলে ৯ জার ১ ছয়ে ৬২ রান করেন। ওয়ালটন মাত্র ২৭ বলে ৫ চার ৬ ছয়ে ৭১ রান এবং নুরুল ১৫ বলে ২টি করে চার ছয়ে ২৯ রান করে অপরাজিত ছিলেন। এছাড়া ওপেনার অভিষ্কা ফেরনান্দো ২৭ বলে করেন ৪৮ রান। যাতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ২৩৮ রান তোলে চট্টগ্রাম।

দুদলের পরবর্তী ম্যাচ:

কুমিল্লার পরবর্তী ম্যাচ ২৩ ডিসেম্বর। ঢাকা প্লাটুনের বিপক্ষে পরবর্তী ম্যাচ খেলতে নামবে দলটি। আর চট্টগ্রাম মাঠে নামবে কালই। কাল দিনে দ্বিতীয় ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের মুখোমুখি হবে স্বাগতিকরা।

আগামী দিনের ম্যাচ:

অন্য দিনের মতো কালও বিপিএলে আছে দুই ম্যাচ। দিনের প্রথম মাচে বাংলাদেশ সময় দেড়টায় সিলেট থান্ডার্সের মুখোমুখি হবে খুলনা টাইগার্স। আর দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের মুখোমুখি হবে রংপুর রেঞ্জার্স। দুটি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।