advertisement
আপনি দেখছেন

আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর বদলে গেছে পাকিস্তানের ক্রিকেট। প্রধান কোচ মিকি আর্থারকে ছাঁটাই করে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে স্বদেশি মিসবাহ উল হককে। নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল সরফরাজ আহমেদকে। তিন সংস্করণের জন্য দুজন অধিনায়ক নির্বাচন করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

shoaib akhtar ex pakistani speed master

পাকিস্তানের সীমিত ওভারের ক্রিকেটের নেতা বানানো হয় বাবর আজমকে। আর টেস্ট দলের নেতৃত্বের জোয়াল পড়ে আজহার আলির কাঁধে। তাতেই আপত্তি দেশটির কিংবদন্তি শোয়েব আখতারের। টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে আজহারকে পছন্দ হয়নি সর্বকালের সেরা গতিময় তারকার।

অধিনায়কত্ব তো দূরের কথা, পাকিস্তানের একাদশে আজহারের থাকার যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন শোয়েব। তার মতে আজহার একাদশে থাকার যোগ্য রাখেন কিনা সেটা তাকে প্রমাণ করতে হবে। শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে বিস্ফোরক একটা পোস্ট দিয়েছেন শোয়েব।

টুইট করে পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার বলেছেন, ‘আজহার আলিকে প্রমাণ করতে হবে যে, সে দলে থাকার যোগ্য। এখনো বড় ইনিংস দেখলাম না।’ শোয়েবের প্রশ্ন তোলাটা অমূলক নয়। কারণ সম্প্রতি ব্যাট হাতে রানখরায় ভুগছেন আজহার। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে চারবার ব্যাট করে ৬২ রান করেছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক।

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের একমাত্র ইনিংসে ৩৬ রান করেছেন আজহার। চলমান করাচি টেস্টের প্রথম ইনিংসে তো রানের খাতাই খুলতে পারেননি তিনি। দুই বল খেলেই সাজঘরে ফিরে গেছেন। প্রথম ইনিংসে তার দলও খুব একটা এগোতে পারেনি। গুটিয়ে গেছে ১৯১ রানে।

জবাব দিতে নেমে শ্রীলঙ্কা করেছে ২৭১ রান। আজ তৃতীয় দিন বিনা উইকেটে ৫৭ রানে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করবে পাকিস্তান। এদিন পুরোটা সময় ব্যাট করতে পারলে করাচি টেস্ট উপভোগ্য হয়ে উঠবে বলে মনে করছেন শোয়েব, ‘করাচি টেস্ট উপভোগ্য হয়ে উঠবে যদি আমরা তৃতীয় দিনের পুরোটা সময় ব্যাট করতে পারি।’