advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কার্যালয়ে আজ সারাদিনই বেশ শোরগোল দেখা গেল। গণমাধ্যমকর্মীদের বাড়তি উপস্থিতি, সঙ্গে বিসিবি কর্তাদের আনাগোনা। পরে বিসিবির পক্ষ থেকে বড় সিদ্ধান্তও এসেছে। ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এর আগে তিন সিনিয়র ক্রিকেটারের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন তিনি।

 tamim iqbal nazmul hasan papon

সূত্র বলছে, টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক ও টেস্ট দলের দুই সিনিয়র ক্রিকেটার তামিম ইকবাল এবং মুশফিকুর রহিমকে আজ বিসিবি কার্যালয়ে তলব করেন নাজমুল হাসান পাপন। দুপুর ১টার দিকে বিসিবি কার্যালয়ে হাজির হন তিন ক্রিকেটার। প্রায় ঘণ্টখানেক ধরে তিনজনের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন বিসিবি প্রধান। এই বৈঠকে বিসিবির কোনো পরিচালকও ছিলেন না। কী বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা অবশ্য জানা জায়নি।

এদিকে, সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনার পর বিসিবি পরিচালকদের ডেকে আলোচনায় বসেন পাপন। তার পর পরই গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে এসে মাশরাফিকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন বিসিবি সভাপতি।

ক্রিকেটের ছোট-খাট বিষয়গুলোতেও নিজেকে জড়িয়ে ফেলবেন, কদিন আগে এমন কথা বলেছিলেন পাপন। জাতীয় দলের সাম্প্রতিক ব্যর্থতা নিয়ে বলতে গিয়ে বিসিবি সভাপতি সেদিন বলেন, ‘আমরা (জাতীয় দল) হোঁচট খাচ্ছি। এজন্য সবচেয়ে বড় দায়টা আমার নিজেরই। আমি একটু বেশিই ক্রিকেট থেকে সরে এসেছিলাম। সরে আসতে চাচ্ছিলাম আর কী। ভেবেছিলাম অনেক হয়েছে, আস্তে আস্তে (ওরা) নিজেরাই সব করতে পারবে। এখন দেখছি আবার আগের মতো হয়ে যেতে হবে। ওই যে আপনারা নাম দিয়েছিলেন মিস্টার ইন্টারফেয়ারার। ওই রকম আবার মনে হয় একটা নাম হতে যাচ্ছে।’

sheikh mujib 2020