advertisement
আপনি দেখছেন

আগামীকাল বুধবার বিয়ের পিড়িতে বসতে যাচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তারকা খেলোয়াড় সৌম্য সরকার। এর আগে গত শুক্রবার সাতক্ষীরার মধ্য কাটিয়া এলাকায় নিজ বাড়িতে সম্পন্ন হয় তার আশীর্বাদ অনুষ্ঠান। সেখানে হরিণের চামড়ার ওপর বসে সব কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়। আর এতেই সমালোচনার মুখে পড়েছেন এই তারকা।

somuya marraige1

সেই অনুষ্ঠানের বেশ কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েলে তাতে দেখা যায়, হরিণের চামড়ার তৈরি আসনের ওপর বসে ও পরে দাঁড়িয়ে পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে সৌম্য আশীর্বাদ গ্রহণ করছেন।

এদিকে নেটিজেনদের সমালোচনার জবাব দিয়েছেন সৌম্যর বাবা কিশোরী মোহন সরকার। তিনি বলেন, হরিণের চামড়ার ওপর বসে আশীর্বাদ গ্রহণ করা বহু পুরোনো পারিবারিক ঐতিহ্য। এটি মূলত প্রার্থনার জন্য ব্যবহার করা হয়। যা যুগ যুগ ধরে বংশানুক্রমে ব্যবহার হয়ে আসছে।

‘এই ধারা আমার বাবা পেয়েছেন দাদার কাছ থেকে। আমি পেয়েছি বাবার কাছ থেকে। আর এখন ঐতিহ্য মেনে তা সৌম্যর বিয়েতেও ব্যবহার হচ্ছে’, যোগ করেন কিশোরী মোহন সরকার।

তিনি বলেন, এটি প্রথমে কে ব্যবহার করেছিলেন তা ঠিক জানা নেই। পূর্বপুরুষ থেকে পাওয়া আরো অনেক জিনিস আছে। সৌম্য পরিবারের ছোট ছেলে হওয়ায় তার বিয়েতে এটি ব্যবহার করা হচ্ছে। তবে কিছু মানুষ বিষয়টিকে নিয়ে তিলকে তাল বানানোর চেষ্টা করছেন।

উল্লেখ্য, আগামীকাল কনে প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজার সঙ্গে বিযের পি‌ঁড়ি‌তে বসবেন সৌম্য সরকার। পরে ২৮ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরার মোজাফফর গার্ডেনে তাদের বৌভাত অনু‌ষ্ঠিত হবে।