advertisement
আপনি দেখছেন

দেশের মাঠে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ টেস্ট একাদশের বাইরে রয়েছেন তিনি। এর যে তিক্ত স্বাদ তা ভালো করেই টের পাচ্ছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তার মধ্যেই এক দুঃসংবাদ পেলেন তিনি। মিরাজের বাসা থেকে চুরি হয়েছে ২৭ ভরি স্বর্ণালংকার আর মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা। সব মিলিয়ে সময়টা খুব খারাপ যাচ্ছে এই তরুণ অলরাউন্ডারের। 

mehidi hasan miraj bangaldesh

জানা গেছে, মিরাজ থাকেন মিরপুরে বিজয় রাকিন সিটির একটি ফ্ল্যাটে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মিরপুর টেস্ট চলায় দলের সব খেলোয়াড়ের মতো তাকেও থাকতে হয়েছে টিম হোটেলে। হোটেলে মিরাজের সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী রাবেয়া আখতারও। গত পাঁচ দিন তার ফ্ল্যাট ছিল ফাঁকা।

এর পর বুধবার দুইজন ফিরে দেখেন চুরি হয়েছে বাসায়। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মিরাজের মায়ের ৭ ভরি আর স্ত্রীর ২০ ভরি স্বর্ণালংকার চুরি হয়েছে। যেটির বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় সাড়ে ১৬ লাখ টাকা। এ ছাড়া সোনার সঙ্গে চুরি হয়েছে ৬ হাজার মার্কিন ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় যেটি ৫ লাখ ১০ হাজার টাকা।

এ ঘটনায় ওই দিন সন্ধ্যায় কাফরুল থানায় একটি মামলা করেন মিরাজ।

কাফরুল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলিমুজ্জামান জানান, নকল চাবি ব্যবহার করে ফ্ল্যাটে ঢোকে চোর।

sheikh mujib 2020