advertisement
আপনি দেখছেন

সিরিজের ভাগ্য নির্ধারণ হয়ে গেছে আগেই। তৃতীয় তথা শেষ ওয়ানডে ম্যাচটা হয়ে উঠেছিল নিয়মরক্ষার উপলক্ষ্য। শ্রীলঙ্কা যেমন হোয়াইটওয়াশের লক্ষ্যে অটুট ছিল তেমনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য মান বাঁচানোর সুযোগ। আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত থ্রিলার উপহার দিল। যেখানে নাটকীয় জয় পেল শ্রীলঙ্কা।

mathews is a key figure for sri lanka

রোববার পাল্লেকেল্লেতে থ্রিলার ম্যাচে লঙ্কানরা জিতেছে ছয় রানের ব্যবধানে। আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৩০৭ রানের শক্তিশালী সংগ্রহ তোলে স্বাগতিকরা। জবাব দিতে নেমে নয় উইকেটে ৩০১ রান পর্যন্ত তুলতে সক্ষম হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এই হারে ৩-০ ব্যবধানে ধবলধোলাই হলো ক্যারিবীরা।

শ্রীলঙ্কা তিন শ ছাড়িয়েছে একক কোনো ব্যাটসম্যানের অবদানে নয়। ছিল দলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা। হাফসেঞ্চুরি করেছেন দুজন। আভাস দিয়ে ফিরেছেন আরো দুজন। ছিল দুটি ছোটখাটো ক্যামিও ইনিংস। যা লঙ্কান বোলারদের এনে দিয়েছে লড়াইয়ের রসদ। কুসল মেন্ডিস সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেছেন। ৫১ রান এসেছে ধনঞ্জয়া ডি সিলভার ব্যাট থেকে।

কুসল পেরেরা এবং দিমুথ করুনারত্নে দুজনই আউট হয়েছেন সমান ৪৪ রানে। এ ছাড়া আভিশকা ফার্নান্দো ২৯ এবং  থিসারা পেরেরা করেন ৩৮ রান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোলারদের পক্ষে সবচেয়ে সফল আলজারি জোসেফ নিয়েছেন চার উইকেট। দুটি শিকার জেসন হোল্ডারের। শেলডন কটরেল, রোস্টন চেজ এবং কাইরেন পোলার্ড একটি করে উইকেট পান।

কঠিন লক্ষ্য তাড়া করতে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুটা হলো দারুণ। বিনা উইকেটে এক শ ছাড়ায় তারা। টপ অর্ডারের ব্যাটিং দৃঢ়তায় দুই উইকেটে দুশো ছাড়ায় ক্যারিবীয়রা। এরপর নাটকীয়ভাবে ফিরে আসে শ্রীলঙ্কা জমিয়ে দেয় ম্যাচ। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা জয়ের জন্য যে ভিতটা গড়ে দিয়েছিলেন তা কাজে লাগাতে পারেনি মিডল ও লোয়ার অর্ডার।

বৃথাই গেছে শাইপ হোপ, সুনিল অ্যামব্রিস ও নিকোলাস পুরানের হাফসেঞ্চুরি ক’টা। তারা রান করেছেন যথাক্রমে ৭২, ৬০ ও ৫০। অধিনায়ক পোলার্ড ৪৯ রানে আউট হন। ব্যাটসম্যানদের সাজঘরে আসা যাওয়ার ম্যাচের রোমাঞ্চ জমিয়ে রাখেন সাতে নামা ফ্যাবিয়ান অ্যালান। ১৫ বলে ৩৭ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেন তিনি।

শেষ সাত ব্যাটসম্যানের মধ্যে তিনি ছাড়া আর কেউ যেতে পারেননি দুই অংকে। ক্যারিবীয়দের মিডল ও লোয়ার অর্ডারে ধস নামিয়ে চার উইকেট তুলে নেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। যা তাকে দিয়েছে ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

sheikh mujib 2020