advertisement
আপনি দেখছেন

বিসিবির সঙ্গে অনেক ‘জলঘোলা’র পর অবশেষে নেতৃত্ব ছেড়ে দিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। আজ বৃহস্পতিবার সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তৃতীয় ও সর্বশেষ ওডিআইকে সামনে রেখে ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি অধিনায়কত্ব ছাড়ার ঘোষণা দেন। সেইসঙ্গে পরবর্তী অধিনায়কের ব্যাপারে নিজের মতামতও জানান মাশরাফি।

mashrafe press conference 2020আজ সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বিন মর্তুজা

এর মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয়ে গেল বাংলাদেশ ক্রিকেটের সফলতম একটি অধ্যায়ের। আগামীকাল সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচটিই হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির শেষবারের মতো পথচলা।

এদিন সংবাদ সম্মেলনে নতুন অধিনায়ক হিসেবে কাকে দেখতে চান তারও ইঙ্গিত দিয়েছেন দেশসেরা এ অধিনায়ক।

গণমাধ্যমকর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, ‘প্রথমত এটা ক্রিকেট বোর্ডের সিদ্ধান্ত। তারা যাকে যোগ্য মনে করবে তার কাঁধেই নেতৃত্বের দায়িত্ব দেবেন। তবে যদি একান্তই আমার মতামত জানতে চওয়া হয় তাহলে বলবো, সিনিয়রদের মধ্য থেকে কাউকে দেয়া হোক। এক্ষেত্রে অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানো যাবে।’

বিসিবি সূত্রে জানা যায়, নতুন অধিনায়ক হিসেবে সাকিব আল হাসানকেই প্রথম পছন্দ বোর্ডের। তাদের চাওয়া আগামী ২০২৩ বিশ্বকাপের নেতৃত্ব দেবেন এ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। কিন্তু তিনি নিষেধাজ্ঞার মধ্যে থাকায় আপাতত অধিনায়ক হিসেবে মুশফিককে প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। তবে মুশফিক এ প্রস্তাবে সাড়া দেননি।

বিসিবিকে সাবেক এই অধিনায়ক (মুশফিক) জানিয়েছেন, যদি পূর্ণ মেয়াদে দায়িত্ব দেয়া হয় তাহলে ভেবে দেখবেন তিনি। এ ছাড়াও অধিনায়ক হিসেবে বোর্ডের তালিকায় আছেন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। যদি তারা দায়িত্ব নিতে না চায় সেক্ষেত্রে তরুণ ক্রিকেটারদের মধ্য থেকে লিটন ও শান্তর কথাও শোনা যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, যেহেতু ২০২৩ বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নতুনভাবে দল গোছাতে চাচ্ছে বিসিবি, সেহেতু অভিজ্ঞদের দায়িত্ব দিলেই ভালো হবে। কারণ তরুণ কাউকে দায়িত্ব দেয়া হলে তারা চাপ সামলাতে পারবে না। আধুনিক ক্রিকেটে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দিয়ে মাঠে নামাটাই অনেক বড় চাপ। তাছাড়া মানুষের অতিমাত্রায় প্রত্যাশা এবং মিডিয়া ও ক্যামেরার আলাদা একটা চাপতো আছেই। সবকিছু সামলিয়ে দল পরিচালনা করা তরুণদের পক্ষে এই মুহূর্তে সম্ভব হবে না।