advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ ক্রিকেটে শেষ হতে যাচ্ছে আরেকটি অধ্যায়ের। আগামীকাল থেমে যাচ্ছে ‘নড়াইল এক্সপ্রেসে’র চাকা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষ সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডে দিয়েই শেষবারের মতো টাইগারদের নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। আজ সংবাদ সম্মেলনে সেটাই জানিয়ে গেলেন তিনি।

mashrafe press conference 20সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বিন মর্তুজা

সরে দাঁড়ানোর সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি আজ কথা বলেছেন সম্ভাব্য সবকিছু নিয়েই। যেখানে পরবর্তী নতুন অধিনায়ক নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। অনুরোধ করেছেন তার উত্তরসূরির দীর্ঘ মেয়াদে দায়িত্ব অর্পণ করার অনুরোধ। অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের পাপ্য সম্মানটুকু চেয়ে বিসিবির কাছে আর্জি জানিয়েছেন ওয়ানডে অধিনায়ক। এনিয়ে মাশরাফি যা বলেছেন:

‘(নতুন অধিনায়ক হিসেবে) কারো নাম বলা কঠিন। অবশ্যই এটা বোর্ডের সিদ্ধান্ত। তবে সিনিয়র যারা আছে তাদের মধ্যে অধিনায়ক হলে ভালো হতে পারে। সাকিব এখন বাইরে, সিনিয়র আরো যে তিনজন আছে...। আর প্রক্রিয়াটা কী আমি জানি না, মানে সাকিব আসার পরে কী হবে। এখন থেকে প্রক্রিয়াটা কাউকে দিয়ে শুরু হবে কিনা। তবে আমি নিশ্চিত যারা তিনজন বর্তমানে আছে তাদের অধিনায়কত্ব করার এবিলিটি (সামর্থ্য) আছে। আমি আশা করছি যে সেরা তাকেই মনোনীত করা হবে।‘

‘পরবর্তী অধিনায়ক যেন হয় ২০২৩ (বিশ্বকাপ) এর। এমন যেন না হয় বিশ্বকাপের একবছর আগে হঠাৎ বলা হল ওকে দিয়ে চলছে না। এমনটা বাংলাদেশে অহরহ হয়। সেটা হলে কিন্তু যে প্রসেসটা চালু হয়েছে সেটায় স্থির থাকা হল না। আমি বিশ্বাস করি আমি পেশাদারিত্বের সঙ্গে সিদ্ধান্তটা নিয়েছি। আমি আশা করব যারা পরবর্তী অধিনায়ককে নিয়ে ভাববে তারাও যেন পেশাদারিত্ব নিয়ে আলোচনা করে, সেটা যেন ধরে রাখে। তাকে পর্যাপ্ত সময় দিয়ে তারপর যেন ২০২৩ এর চিন্তা করা হয়।’

‘যখন নতুন কোচ আসে সে তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে। আমাদের তার প্রতি একটা ধারণা থাকা উচিত। তাকে সুযোগটা দেওয়া উচিৎ। আবার ধরেন মুশফিককে কীভাবে পরিচালনা করবেন? এখন মুশফিককে নিয়ে যদি কৌতুকের সর্বোচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যান। তার মানে আমরা আমাদের সম্পদ নিয়ে নাড়াচাড়া করছি। মুশফিক কতদিন আর খেলবে। ওকেও আমাদের পেশাদারিত্বের বিষয়ে ওর সাথে আলোচনা করতে হবে। আমি শুধু মুশফিক নয়, সবার কথাই বলছি। তাকে সর্বোচ্চটা সম্মান বা তার কাছ থেকে সেরাটা নিয়ে আসতে যে পক্রিয়া আছে সেটাই কঠিন লাগে।'

‘আমাদের খেলোয়াড়েরও দায়িত্ব আছে, টিম ম্যানেজমেন্টের দায়িত্ব আছে বোর্ডের দায়িত্ব আছে। ম্যানেজমেন্টের দায়িত্ব আছে। এমন না যে দুই বছর পরপর এতকজন কোচ আনলাম তার মতো করে এক্সপরিমেন্টে করে চলে গেলো। আমাদের সবার ভাবতে হবে এ দেশের খেলোয়াড়রাই এ দেশকে পরবর্তী ধাপে নিয়ে যাবে। কাজেই এখানে কেউ এসে যদি এক্সপেরিমেন্ট করতে চায় এবং সেটা যদি মনে হয় বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নতি হবে তাহলে তাকে সর্বোচচ সহযোগিতা করা উচিত। আর যদি তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা নিয়ে কোনো সন্দেহ থাকে তাহলে অব্যশ্যই থামানো উচিত।'

sheikh mujib 2020