advertisement
আপনি দেখছেন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস আতঙ্কে খেলাধুলা স্থগিত হয়ে আছে। নিকটতম ভবিষ্যতে যেসব প্রতিযোগিতা আছে তার কয়েকটাই এক বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। বাকিগুলোর ভাগ্য এখনো সুতোয় ঝুলে আছে। সেসব টুর্নামেন্টের একটি এশিয়া কাপ ক্রিকেট ২০২০।

acc asiacup

এশিয়ার ক্রিকেট শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের কিছুই এখনা ঠিকঠাক হয়নি। ভেন্যু, সূচি, সম্ভাব্য তারিখ সবকিছুতেই সংশয়। সেটা আরো অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিল করোনাভাইরাস মহামারি। অনিশ্চয়তার মেঘ সরাতে বৈঠকের বসার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল। কিন্তু বৈঠকও স্থগিত হয়ে গেল।

গত আসরে ভারত এশিয়া কাপ আয়োজন করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। পাকিস্তান পরবর্তী আসরের আয়োজক। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) নিজেদের মাটিতে আসরটি করার জন্য মরিয়া হয়ে নেমেছে। কিন্তু কূটনৈতিক সম্পর্কের জের ধরে পাকিস্তানে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ভারত।

পাকিস্তানি বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর, পিসিবি টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে পারে নিরপেক্ষ ভেন্যু বাংলাদেশে। এখানে আসতে অবশ্য আপত্তি নেই ভারতের। সবমিলিয়ে এশিয়া কাপের ভাগ্যে কী আছে তা এখনই বলা মুশকিল। এসিসির সদস্য দেশগুলোর বৈঠকে বসার কথা থাকলেও তা স্থগিত করা হয়েছে। বৈঠক কবে নাগাদ অনুষ্ঠিত হবে তা পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে জানিয়ে দেবে এসিসি।

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট আয়োজন হয়নি। পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরলেও ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়ার মতো পরাশক্তিরা সেখানে সফর করেনি। বাংলাদেশ দুই দফা সফর করার পর শেষবার যাওয়ার অপেক্ষায় ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস আতঙ্কে সেটাও স্থগিত হয়ে আছে।