advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে গেল ১৫ মার্চ থেকে স্থগিত আছে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট। দেশটিতে পরিস্থিতি আগের চেয়ে কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে। তাই মাঠে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ক্রিকেটাররা। ফিটনেসে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়ার লক্ষ্যে আগামী সপ্তাহ থেকে ট্রেনিং ক্যাম্প শুরু করবে প্রোটিয়ারা। সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড (সিএসএ)।

south africa wc celebration

আগামী মাসে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ টেস্ট সিরিজ দিয়ে ক্রিকেট ফিরছে মাঠে। এরপর আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিনটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে ইংলিশরা। সিরিজ দুটিতে অংশ নিতে ইতোমধ্যে পাকিস্তান দলের একাংশ ইংল্যান্ডে পাড়ি জমিয়েছে। সেখানে দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিনে থাকবেন বাবর-আজহাররা।

পাকিস্তান মাঠে নামবে আরো ১৩ দিন পর। তবে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইতোমধ্যে মাঠে নেমেছে। অনুশীলন শুরু করেছে শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তানও। এবার মাঠে নামার অপেক্ষায় দক্ষিণ আফ্রিকা। সোমবার ফ্যাফ ডু প্লেসি, কুইন্টন ডি ককদের অনুশীলন শুরু করার অনুমতি দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা সরকার। প্রোটিয়া ক্রিকেট বোর্ড অবশ্য অনেকদিন আগেই অনুমতি চেয়েছিল। দেরিতে হলেও অনুমতি পেল সিএসএ।

south africans celebrate wicket vs sri lanka

প্রাথমিকভাবে জাতীয় দলের পুরুষ ও নারী ক্রিকেটাদের অনুশীলনে নামাবে সিএসএ। এরপর পর্যায়ক্রমিক অন্যদের মাঠে নামার পরিকল্পনায় আছে তারা। আগামী বৃহস্পতিবার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বিধিনিষেধ নিয়ে আলোচনা করে শিগগিরই মাঠে ক্রিকেট ফেরাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে সিএসএ।

প্রসঙ্গত, দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাসের ছোঁবলে প্রাণ গেছে প্রায় আড়াই হাজার মানুষের। আক্রান্তদের তালিকায় বাংলাদেশের পরেই আছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

sheikh mujib 2020