advertisement
আপনি দেখছেন

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে গতকাল রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে মাঠে নামে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। রাজস্থানের ইনিংসের ৮ম ওভারে দুর্দান্ত ফিন্ডিং করে ছয় বাঁচান নিকোলাস পুরান, যা দেখে হতবাক সবাই। এরপর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসায় ভাসছেন এই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার।

pooran fielding 

টুইটারে ভারতীয় কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকার লেখেন, এটা তার দেখা সেরা ফিল্ডিং। একই কথা বলেন ম্যাচের সময় কমেন্ট্রি বক্সে থাকা জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে। যাকে সর্বকালের সেরা ফিল্ডার ভাবা হয়, সেই জন্টি রোডসও মেনে নিলেই এটাই ইতিহাসের সেরা সেভ। শুধু তাই নয়, পুরানের ফিল্ডিংয়ের প্রশংসা করে টুইট করেন স্কট স্টাইরিশ, আলবি মরকেল, ইয়ান বিশপ, গৌরভ কাপুররাও।

পুরানের ইতিহাসে ঠাঁই পাওয়া ফিল্ডিংয়ের দিনে হারতে হয় তার দলকে। আগে ব্যাট করে মায়াঙ্ক আগারওয়াল এবং লোকেশ রাহুলের কল্যাণে ২২৩ রানের পাহাড়সম পুঁজি পায় পাঞ্জাব। কিন্তু জবাব দিতে নেমে শুরুতেই বাটলারকে হারালেও সমস্যায় পড়তে হয়নি রাজস্থানকে।

৮১ রানের জুটি গড়ে বিপদ সামাল দেন স্টিভ স্মিথ এবং সানজু স্যামসন। ফিফটি করে বিদায় নেন স্মিথ। তবে থেমে থাকেননি স্যামসন। কচুকাটা করতে থাকেন পাঞ্জাবের বোলারদের। ২৭ বলে অর্ধশতক করেন এই হার্ডহিটার। মোহাম্মদ সামির বলে আউট হওয়ার আগে ৪২ বলে ৪ চার এবং ৭ ছয়ে খেলেন ৮৫ রানের টর্নেডো ইনিংস।

rahul tewatiaরাহুল তিওয়াতিয়া

ক্রিজে নেমে প্রথমে ব্যাটে-বলে টাইমিং হচ্ছিল না রাহুল তিওয়াতিয়ার। কিন্তু স্যামসন ফিরে গেলে দলের হাল ধরেন এই ব্যাটসম্যান। খোলস ছেড়ে বের হয়ে এসে নিজের ভেল্কি দেখাতে থাকেন। শেষ পর্যন্ত ঝড়ো ফিফটি করে বিদায় নেন তিনি। তবে ততক্ষণে দল প্রায় জয়ের বন্দরে নোংর করেছে।

sheikh mujib 2020