advertisement
আপনি দেখছেন

করোনার কারণে ক্রীড়াঙ্গনের পরিবর্তনটা বেশ লক্ষ্যণীয়। আগের মতো গ্যালারিতে দর্শক প্রবেশের অনুমতি নেই। খেলোয়াড়দেরকেও বন্দী থাকতে হচ্ছে জৈব সুরক্ষিত বলয়ে। মহামারির সময়ে যতগুলা আন্তর্জাতিক সিরিজ কিংবা টুর্নামেন্ট চলছে, সবগুলোতেই এই নিয়ম বহাল আছে। অথচ ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে স্বাস্থ্যবিধি ভেঙে বিতর্কের জন্ম দিল পাকিস্তানের ৯ ক্রিকেটার। এমন ঘটনার পর স্বাভাবিকভাবেই কড়া হুঁশিয়ারি জানালো পিসিবি।

pcb logo

নয় ক্রিকেটারের পাশাপাশি তিন কর্মকর্তাও নিয়ম ভঙ্গ করেন। এদের কারও নামই প্রকাশ করেনি পিসিবি। তবে দেশটির গণমাধ্যম জৈব সুরক্ষিত বলয় ভাঙা ক্রিকেটার এবং কর্মকর্তাদের নাম প্রকাশ করেছে। যেখানে আছেন মোহাম্মদ হাফিজ, ফখর জামান, ইয়াসির শাহ, আনোয়ার আলি, কামরান আকমল, ইমাম উল হক, খুররম মঞ্জুর, উসমান খান শিনওয়ারি, সোহেল খান, আব্দুল রাজ্জাক, রশিদ খান ও বাসিত আলি।

সিনিয়র খেলোয়াড়দের এমন আচরণে খুবই বিরক্ত দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। জানানো হয়, এমন ভুল পুনরায় হলে কোনো ছাড় নয়। পিসিবির হাই পারফরম্যান্স সেন্টারের পরিচালক নাদিম খান বলেন, ‘আমাদের কাছে বিষয়টা একদমই অগ্রহণযোগ্য। এর সাথে জড়িত ক্রিকেটার এবং কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেছি। এরপর এমন ভুল হলে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। চলতি আসর এমনকি এই টুর্নামেন্ট থেকেই তাদের বাদ দেওয়া হবে।’

mohammad hafiz pakistanমোহাম্মদ হাফিজ

সেই সাথে নিজেদের হতাশার কথা জানান এই কর্মকর্তা, ‘ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে কয়েকজন ক্রিকেটার এবং কর্মকর্তা জৈব সুরক্ষিত বলয় ভেঙেছেন। এটা শোনার পর আমরা সত্যিই খুব হতাশ। ওদের কারণে টুর্নামেন্টের গ্রহণযোগ্যতা প্রশ্নবিদ্ধ হলো। সেই সাথে বাকিরাও স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ে গেলো। সিনিয়রদের কাছ থেকে এসব অপ্রত্যাশিত।’

sheikh mujib 2020