advertisement
আপনি দেখছেন

চলতি বছরের শেষদিকে ভারতের মাটিতে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর। যেখানে খেলার জন্য পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের ভিসা দেওয়ার নিশ্চয়তা দিয়েছে ভারত সরকার। গতকাল এক সভায় বোর্ড ফর ক্রিকেট কন্ট্রোল অফ ইন্ডিয়া (বিসিসিআই) থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

pakistan team

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিসিআইয়ের এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ভিসা সংক্রান্ত জটিলতার সমাধান হয়েছে। তারা যথাসময়েই ভিসা পাবেন। তবে পাকিস্তানের ক্রিকেট ভক্তরা সীমান্ত অতিক্রম করতে পারবেন কিনা, তা এখনও নিশ্চিত নয়। বিশ্বকাপের আগে হয়তো এ সিদ্ধান্ত চলে আসবে।’

গত ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান এহসান মানি জানিয়েছিলেন, ভারত সরকার ভিসা দিলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নেবে পাকিস্তান। নয়তো বিশ্বকাপ থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নেবে পিসিবি।

রাজনৈতিক টানাপোড়েনের কারণে পাকিস্তান-ভারতের মধ্যে দা-কুমড়া সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। ২০১২ সালের পর দুদল কোনো দ্বিপাক্ষিক সিরিজে অংশ নেয়নি। তাই আইসিসির ইভেন্ট কিংবা এশিয়া কাপ দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের মুখোমুখি হওয়ার একমাত্র মঞ্চ।

pcb logo

২০১১ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে পাঞ্জাবে খেলেছিল পাকিস্তান। পরের বছর তিনটি ওয়ানডে এবং সমান টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। ২০১৬ সালে আফ্রিদির নেতৃত্বে পাকিস্তান দল অংশ নিয়েছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। এবার বাবর আজমরা ৫ বছর পর ভারত সফর করবে।

আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতে অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এজন্য গতকাল আহমেদাবাদ, মুম্বাই, নয়া দিল্লি, চেন্নাই, কলকাতা, বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ, ধর্মশালা, লক্ষ্মৌ, এই নয়টি ভেন্যু চূড়ান্ত করেছে বিসিসিআই।