advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে দুই বছর পেছানো হয়েছে ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তবে এ বছরের বিশ্বকাপ যথারীতি সঠিক সময়েই অনুষ্ঠিত হবে। টুর্নামেন্টের আয়োজক ভারত। করোনা সংকটের মধ্যেই নীরব প্রস্তুতি চলছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই)। এ যাত্রায় বিশ্বকাপের নয়টি ভেন্যু চূড়ান্ত করে ফেলেছে তারা।

india celebrate a wicket 3

ভেন্যুগুলো হচ্ছে কলকাতা, মুম্বাই, নয়া দিল্লি, ব্যাঙ্গালুরু, ধর্মশালা, হায়দরাবাদ, আহমেদাবাদ, চেন্নাই এবং লখনৌ। শেষ চারটি ভেন্যু নতুন করে সংযুক্ত করেছে বিসিসিআই। ভারতে অনুষ্ঠিত ২০১৬ বিশ্বকাপে এই চারটি ভেন্যু ছিল না। নতুন ভেন্যুর জায়গা দিতে গিয়ে বাদ দেওয়া হয়েছে মোহালি এবং নাগপুর স্টেডিয়াম।

বিসিসিআইয়ের বিশ্বস্ত সূত্রের খবর, আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে আসন্ন বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। তবে নিশ্চিত করে কিছুই বলছে না বিসিসিআই। এ প্রসঙ্গে বোর্ডের এক কর্তা গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘প্রত্যেকটি ভেন্যুকে প্রস্তুতি শুরু করতে বলা হয়েছে। তবে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি মাথায় রাখতে হচ্ছে। বছরের শেষ দিকে পরিস্থিতি কেমন থাকবে তা এখনই বলা কঠিন। কিন্তু আমাদের এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু করতে হচ্ছে।’

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর্দা ওঠেনি। টুর্নামেন্ট পেছানো হয় দুই বছরের জন্য। তবে ভারতে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপ যথা সময়ে আয়োজন করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসি। কিন্তু এখনো কোভিড-১৯ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। এই অস্বাভাবিকতার মধ্যেই কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রস্তুতি নিতে হচ্ছে ভারতকে।