advertisement
আপনি পড়ছেন

সকালের সূর্য সব সময় সারাদিনের পূর্বাভাস দেয় না। চিরপরিচিত এই প্রবাদটি প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিনে বাংলাদেশ দলের সাথে হুবহু মিলে গেছে। দুর্দান্ত বোলিং করে প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের বিপক্ষে লিড নিয়েছিল তারা। তবে বাজে ব্যাটিংয়ে দিন শেষে উল্টো বিপদে পড়েছে রাসেল ডোমিঙ্গোর শিষ্যরা।

bd 2nd inningsতৃতীয় দিনের শেষ বিকেলে বিপদে পড়েছে বাংলাদেশ

তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। এর আগে তাইজুল ইসলামের বোলিং তোপে পড়ে প্রথম ইনিংসে ২৮৬ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। আবিদ আলি এবং আব্দুল্লাহ শফিকের ব্যাটিং দৃঢ়তায় কোনো উইকেট না হারিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষে প্রথম ইনিংসে ১৪৫ রান করে তারা। আজ ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই শফিক (৫২ রান) এবং আজহার আলির (০ রান) উইকেট তুলে নেন তাইজুল।

বাবর আজম, ফাওয়াদ আলম, মোহাম্মদ রিজওয়ান, হাসান আলিরাও কিছু করতে পারেননি। আচমকা ব্যাটিং ধসের বিপরীতে দাঁড়িয়ে ক্যারিয়ারের চতুর্থ টেস্ট শতক তুলে নেন আবিদ। সাজঘরে হাঁটার আগে ১২ চার এবং ২ ছয়ের মারে ১৩৩ রান করেন এই ডানহাতি ওপেনার।

taijul celebration৭ উইকেট নিয়েছেন তাইজুল

সাত নম্বরে ব্যাট করতে নেমে দায়িত্বশীল ইনিংস খেলেন ফাহিম আশরাফ। তাইজুলের বলে লিটন কুমার দাসের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে ৩ চারের পাশাপাশি ১ ছয়ের সাহায্যে ৩৮ রান করেন এই সিমিং অলরাউন্ডার। ১১৬ রানের বিনিময়ে ৭ উইকেট নেন তাইজুল। এবাদত হোসেনের শিকার ২ উইকেট।

প্রথম ইনিংসে ৩৩০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। ৪৪ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে বিপদে পড়ে স্বাগতিকরা। সাদমান ইসলাম অনিক, নাজমুল হোসেন শান্ত, মমিনুল হক সৌরভ কিংবা সাইফ হাসান, কেউই দলের হাল ধরতে পারেননি। মুশফিকুর রহিম ১২ এবং ইয়াসির আলি রাব্বি ৮ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করবেন। মাত্র ৬ রানের বিনিমেয়ে ৩ ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। হাসান নেন ১ উইকেট।