advertisement
আপনি পড়ছেন

গত ফেব্রুয়ারির পর পাকিস্তানে প্রথম সফরকারী দল হিসেবে খেলতে যাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দলটির পাকিস্তান সফরকালে সর্বোচ্চ নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। পিসিবি জানিয়েছে, সে সময় নিরাপত্তা বাহিনীর দেড় হাজারেরও বেশি সদস্য তাদের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে।

pakistan west indisপাকিস্তান সফরে যাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের সফরের সময় ৮০০ স্পেশাল সিকিউরিটি ইউনিট (এসএসইউ) কমান্ডো এবং লেডি কমান্ডোসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থার মোট দেড় হাজারেরও বেশি কর্মী নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবে।

এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কর্মীরা স্টেডিয়াম, বিমানবন্দর, যাতায়াতের পথ, হোটেলসহ বিভিন্ন এলাকায় দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়া সংবেদনশীল পয়েন্টগুলিতে শার্প শুটারও মোতায়েন করা হবে। অন্যদিকে, স্টেডিয়ামের আশেপাশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য জাতীয় স্টেডিয়ামে একটি বিশেষ কমান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল বাস থাকবে এবং পার্কিং পয়েন্ট থেকে স্টেডিয়াম পর্যন্ত দর্শকদের জন্য শাটল পরিষেবা সরবরাহ করা হবে।

law order in pakistanসফরকারীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে পাকিস্তান

এর বাইরেও উচ্চ প্রশিক্ষিত ও সুসজ্জিত কমান্ডোদের সমন্বয়ে বিশেষ একটি টিম (সোয়াত) এসএসইউ সদর দপ্তরে সব সময় সতর্কাবস্থায় থাকবে। যে কোনো জরুরি পরিস্থিতিকে চ্যালেঞ্জ জানাতে দ্রুত অ্যাকশনে যাওয়া বাহিনী হিসেবে তারা সদা তৎপর থাকবে।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের মাটিতে একের পর এক সিরিজ বাতিল হওয়ার পর সেখানে খেলতে যাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০১৮ সালের পর আগামী ৯ ডিসেম্বর প্রথমবারের মতো দেশটিতে পা রাখবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এই সিরিজে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে তারা।

গত ফেব্রুয়ারির পর প্রথম সফরকারী দল হিসেবে পাকিস্তানে খেলবে ক্যারিবিয়ানরা। গত ১৭ সেপ্টেম্বর সিরিজ শুরুর কয়েক ঘণ্টা আগে নিরাপত্তা শঙ্কায় পুরো সফর বাতিল করে পাকিস্তান থেকে দেশে ফিরে যায় নিউজিল্যান্ড দল। পরে ইংল্যান্ডও পুরুষ ও নারী দলকে পাকিস্তান না পাঠানোর কথা জানায়। শ্রীলঙ্কাও তাদের মেয়েদের দলের সফর বাতিল করে।