advertisement
আপনি পড়ছেন

প্রথমে বল হাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটারদের ওপর চোখ রাঙিয়েছেন অ্যান্ড্রু ম্যাকব্রায়ান। এরপর ব্যাট করতে নেমেও খেলেছেন দায়িত্বশীল ইনিংস। এই অলরাউন্ডারের মতো সতীর্থরাও দেখিয়েছেন দারুণ দৃঢ়তা। তাতেই সাত বছর পর ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে জয়ের দেখা পেয়েছে আয়ারল্যান্ড।

wi vs ire 2সমতায় ফিরেছে আয়ারল্যান্ড

তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে আয়ারল্যান্ড। জ্যামাইকার সাবিনা পার্কে আগে ব্যাট করতে নেমে ৪৮ ওভারে ২২৯ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা। বৃষ্টি আইনে ২১ বল হাতে রেখেই ১৬৮ রানের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পল স্টার্লিংয়ের দল। এর আগে সবশেষ ২০১৫ সালে দ্বীপ দেশটির বিপক্ষে একদিনের ক্রিকেটে জয় পেয়েছিল আইরিশরা।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৩৭ রান যোগ করেন উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড ও স্টার্লিং। আকিল হোসেনের বলে জেসন হোল্ডারের হাতে ক্যাচ দিলে ব্যক্তিগত ২১ রানেই কাটা পড়ে অধিনায়ক স্টার্লিংয়ের ইনিংস। সাজঘরে হাঁটার আগে পোর্টারফিল্ড করেন ২৬ রান।

wi vs ire 3অ্যান্ড্র ম্যাকব্রায়ান

আয়ারল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেন হ্যারি ট্যাক্টর। ৭৫ বলের মোকাবেলায় ৪ চারের পাশাপাশি ১ ছয়ের মারে অপরাজিত থাকেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। সমান বাউন্ডারি এবং ওভার বাউন্ডারিতে ৩৫ রান করেন ম্যাকব্রায়ান। ট্যাক্টরের সাথে ১ রানে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন গ্যারেথ ডেলানি। ৫১ রানের বিনিময়ে ২ উইকেট নেন আকিল।

টস হেরে ব্যাট করতে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলীয় ৪৩ রানেই তিন ব্যাটসম্যানকে হারায়। টপঅর্ডারদের মধ্যে কেবল হেসেছে শামারাহ ব্রুকসের ব্যাট। এই ডানহাতির ব্যাট থেকে আসে ৪৩ রান। দুই বোলার রোমারিও শেফার্ড ও ওডিন স্মিথ ব্যাট হাতে না দাঁড়াতে পারলে ১৫০ রানেই কোটাতেই আটকে যেতে হতো স্বাগতিকদের।

নয় নম্বরে ব্যাট করতে নেমে সর্বোচ্চ ৫০ রানের ইনিংস খেলেন ডানহাতি মিডিয়াম ফাস্ট বোলার শেফার্ড। স্মিথ করেন ৪৩ রান। ৩৬ রান খরচায় ৪ উইকেট নেন ম্যাকব্রায়ান। ক্রেইগ ইয়ংয়ের শিকার ৩ উইকেট।