advertisement
আপনি পড়ছেন

ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম, ডিআরএসের বিরুদ্ধে অসন্তোষ প্রকাশের পাশাপাশি স্টাম্প মাইকে ক্ষোভ ঝেড়ে অভূতপূর্ব ঘটনার জন্ম দিয়েছে ভারতীয় দল। তবে এসবের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করা হয়নি। তাই পার পেয়ে গেছেন বিরাট কোহলি এন্ড কোং।

kohli near at stumpsক্ষোভ ঝাড়ছেন কোহলি

কেপটাউনের নিউল্যান্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত শেষ টেস্ট সাড়ে তিন দিনেই ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এর আগে সাদা পোশাকের দ্বিতীয় ম্যাচেও সমান ব্যবধানে জিতেছিল ডিন এলগারের দল। তবে প্রথম ম্যাচে স্বাগতিকদের ১১৩ রানে হারিয়েছিল সফরকারীরা।

দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংসে ২১তম ওভারের কথা। এলগারকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। তবে ডিআরএসের ভুলের কারণে সাজঘরে ফিরতে হয়নি স্বাগতিক দলপতিকে। বিষয়টা মেনে নিতে পারছিলেন না সফরকারী দলের কেউই।

sa vs indহতাশ টিম ইন্ডিয়া

এই ঘটনার পর মাঠেই বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করতে থাকেন টিম ইন্ডিয়ার ক্রিকেটাররা। সহ অধিনায়ক লোকেশ রাহুল বলেন, ‘আমাদের ১১ জনের বিরুদ্ধে খেলছে গোটা দেশ।’ ম্যাচের ব্রডকাস্টিং চ্যানেল সুপার স্পোর্টসকে উদ্দেশ্য করে অশ্বিন বলেন, ‘জয়ের জন্য অন্য কোনো পথ বের করো সুপার স্পোর্টস।’

বাকিদের থেকে একটু বেশি ক্ষিপ্ত ছিলেন কোহলি। স্টাম্প মাইকের কাছে মুখ নিয়ে এই ডানহাতি তারকা ব্যাটার বলেন, ‘বল উজ্জ্বল করার সময় তোমাদের দলের দিকে মনোযোগ দাও। শুধু প্রতিপক্ষের দিকে খেয়াল রাখলে চলবে না। সব সময় শুধু অন্য লোকজনদের ধরার চেষ্টা করো।’

ভারতীয় দলের ক্রিকেটারদের অভিযোগ ছিল মূলত ব্রডকাস্টিং চ্যানেলের ওপর। আম্পায়ারদের ওপর হলে পরিস্থিতি আরও ঘোলা হতে পারতো। হয়তো কোনো শস্তির মুখে পড়তে পারতো তারা। তবে এমন ঘটনার পর শাস্তি না পেলেও সতর্কবার্তা পেয়েছেন রাহুল দ্রাবিড়ের শিষ্যরা।