advertisement
আপনি পড়ছেন

পিপুলস ব্যাংক নামে একটি ব্যাংকের অনুমোদন চেয়ে সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগে আবেদন করেছিলেন বাংলাদেশের তারকা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান। আবেদন প্রক্রিয়ায় ত্রুটি থাকার কারণে গতকাল বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি, সে আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়। বিষয়টি নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই সংশ্লিষ্টদের মনে কষ্ট থাকার কথা।

sakib al hasan 19সাকিব আল হাসান

তবে এর পরদিনই আজ শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি, ঠিকই আরেক সুখবর দিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এদিন ‘মোনার্ক মার্ট’ নামে একটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু হয়েছে। যার চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন সাকিব আল হাসান।

প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ক্রেতারা ঝামেলাহীন কেনাকাটার সুধিবা পাবেন মোনার্ক মার্ট থেকে। এর মাধ্যমে ভোক্তাদের চাহিদা পূরণ করতে কিছু উদ্ভাবনী সেবা নিয়ে আসা হয়েছে। ক্রেতাদের সহজ ও ঝামেলাহীন অনলাইন কেনাকাটা এবং দ্রুততম সময়ে পণ্য পৌঁছানো নিশ্চিত করবে মোনার্ক মার্ট। এর মাধ্যমে দেশের ক্রমবর্ধমান ই-কমার্স ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন মাত্রা যুক্ত হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

monarc mart sakibবিপিএলে স্পন্সর মোনার্ক মার্ট

তবে সাকিব আল হাসানের মোনার্ক মার্ট এমন সময় ব্যবসায় নামল যখন সাম্প্রতিক সময়ে ই-কমার্স ব্যবসা নিয়ে ব্যাপক বিতক তৈরি হয়েছে। গ্রাহকের অর্থ লোপাট আর পণ্য নিয়ে নয়-ছয়ে করার কারণে দেশের অধিকাংশ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান বন্ধের পর্যায়ে রয়েছে। অথচ কিছু দিন আগেও তারা নানা অফার আর প্যাকেজ দিয়ে মার্কেট দাপিয়ে বেরিয়েছে। এমন বাস্তবতায় নতুন এই ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান গ্রাহকের সেবা নিশ্চিতে কতটা সফল হয়, সেটা সময়ই বলে দেবে।

উল্লেখ্য, সাকিব আল হাসান ক্রিকেটের বাইরেও রেস্টুরেন্ট ও খামারসহ একাধিক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত আছেন। সেই ধারাবাহিকতায় এবার ই-কমার্স ব্যবসায় নামলেন বিশ্বসেরা এই ক্রিকেটার। মোনার্ক মার্ট মোনার্ক হোল্ডিংসের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। চলমান বিপিএলে ফরচুন বরিশালের গোল্ড স্পন্সর হিসেবে রয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।