advertisement
আপনি পড়ছেন

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এর মাধ্যমে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে প্রোটিয়ারা। তৃতীয় ও শেষ একদিনের ম্যাচে আগামীকাল মুখোমুখি হবে দুই দল। তার আগে শুরুতে পিছিয়ে থেকে দীর্ঘ ফরম্যাটের সিরিজও জিতেছে ডিন এলগারের দল।

sa won by 7 wicketsসিরিজ জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা

সিরিজ বাঁচাতে চাইলে জিততেই হবে, এমন সমীকরণ নিয়ে বোল্যান্ড পার্কে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হয় ভারত। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে বড় পুঁজি পেয়েছিল সফরকারীরা। কিন্তু এক ম্যাচ হাতে রেখেই তাদের আশা গুড়িয়ে দিয়েছে স্বাগতিকরা। ব্যাটসম্যানদের অসাধারণ নৈপুণ্যের কারণেই বড় লক্ষ্য তাড়া করতে বেগ পেতে হয়নি তাদের।

পন্ত এবং লোকেশ রাহুলের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখেছিল ভারত। এই দুজনই পেয়েছেন ফিফটির দেখা। এককাঠি ওপরে ছিলেন পন্ত। সেঞ্চুরি থেকে ১৫ রান দূরে থাকতে এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানকে আউট করেছেন তাবরাইজ শামসি। ৭১ বলে ১০ চার এবং ২ ছয় মেরেছেন পন্ত। রাহুলের ইনিংসটা ছিল কিছুটা ধীরগতির। ৫৫ রান করতে ৭৯ বল খেলেছেন ডানহাতি ওপেনার।

sa won by 7 wickets 2প্রোটিয়া ব্যাটারদের কাছেই হেরেছে টাইগাররা

ফিফটি না হাঁকাতে পারলেও কার্যকরী ব্যাটিং করেছেন শার্দুল ঠাকুর। ৩ চার ও ১ ছয়ের সাহায্যে ৪০ রান করেছেন এই সিমিং অলরাউন্ডার। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ব্যাট থেকে এসেছে ২৫ রান। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে ২৮৭ রান তোলে সফরকারীরা। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে সবচেয়ে খরুচে বোলিং করেছেন শামসি। দুই ব্যাটসম্যানকে সাজঘরের পথ দেখাতে ৫৭ রান খরচ করেছেন এই চায়নাম্যান বোলার।

জবাব দিতে নেমে কুইন্টন ডি কক, জানেমান মালানদের কল্যাণে ১১ বল হাতে রেখেই জয় তুলে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। অল্পের জন্য তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছাতে পারেননি মালান। জাসপ্রিত বুমরাহর বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৯১ রান করেন এই ওপেনার। ডি কক ব্যাট করেছেন অনেকটা টি-টিয়েন্টি মেজাজে। বিদায় নেওয়ার আগে ৬৬ বলে ৭৮ রান করেন তারকা ক্রিকেটার। 

তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ব্যক্তিগত ৩৫ রানে আউট হন টেম্বা বাভুমা। এইডেন মার্করাম ও রসি ভ্যান ডার ডুসেন সমান ৩৭ রানে অপরাজিত থেকে ম্যাচ শেষ করেন। শার্দুল, বুমরাহ ও ইয়ুজবেন্দ্র চাহাল নেন একটি করে উইকেট।