advertisement
আপনি পড়ছেন

দ্বিতীয় সেশনের শুরুতেই জোড়া ধাক্কা খাওয়া শ্রীলঙ্কা ঘুরে দাঁড়ায় অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস এবং বিশ্ব ফার্নান্দোর ব্যাটে। নবম উইকেটে এই দুজনের দৃঢ়তায় অপেক্ষা বড় হয়েছে বাংলাদেশের। ফার্নান্দো রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে ফিরে গেলেও ক্রিজে ছিলেন ম্যাথুস। তবে শেষ পর্যন্ত ডাবল সেঞ্চুরির করতে না পারার আক্ষেপে পুড়ছেন এই সিমিং অলরাউন্ডার। 

sl all outঅলআউট হয়েছে শ্রীলঙ্কা

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৩৯৭ রানে অলআউট হয়েছে শ্রীলঙ্কা। জবাবে ব্যাট করতে নেমেছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার এই পুঁজির পেছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকাটা রাখেন ম্যাথুস। নাঈমের বলে সাকিবের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে খেলেছেন ১৯৯ রানের ইনিংস। ফার্নোন্দো ছাড়াও দিনেশ চান্দিমালের সাথে দারুণ একটি জুটি গড়েন সাবেক অধিনায়ক।

শ্রীলঙ্কা প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছিল ২৫৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে। ম্যাথুস ১১৪ এবং চান্দিমাল ৩৪ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করেন। ১১৪তম ওভারে ৬৬ রান করা চান্দিমালকে ফেরান নাঈম। সেই সাথে ভাঙে ১৩৬ রানের জুটি। একই ওভারে নিরোশান ডিকওয়েলাকেও ফেরান তরুণ অফ স্পিনার। ৩২৭ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে প্রথম সেশন শেষ করে শ্রীলঙ্কা।

mathews tonআক্ষেপে পুড়ছেন ম্যাথুস

লাঞ্চ থেকে ফিরেই সাকিব আল হাসানের তোপের মুখে পড়ে সফরকারীরা। ১১৭তম ওভারে রমেশ মেন্ডিসের পর লাসিথ এম্বুলদেনিয়াকে সাঘরের পথ দেখান এই তারকা ক্রিকেটার। একই ওভারে দুই উইকেট হারানোর পর ফার্নোন্দোকে নিয়ে ৪৭ রান যোগ করেন ম্যাথুস। ফার্নোন্দো রিটায়ার্ড হার্ট হওয়ায় ক্রিজে আসেন আসিথা ফর্নোন্দো।

১ রান করা এই পেসারকে বোল্ড করেন নাঈম। এরপর  ফার্নোন্দো আবারও ব্যাট করতে নামলেও ডাবল সেঞ্চুরির দেখা পাননি ম্যাথুস। ১০৫ রানে ৬ উইকেট শিকার করেছেন নাঈম। সাকিব নিয়েছেন ৩টি।