advertisement
আপনি পড়ছেন

শ্রীলঙ্কার বড় রানের জবাব বাংলাদেশ দিয়েছে দারুণভাবে। দুটি সেঞ্চুরি এবং একটি ফিফটিতে প্রথম ইনিংসে মাঝারি মানের লিড পেয়েছে মুমিনুল হক সৌরভের দল। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৩৯ রানে ২ উইকেটে হারিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করেছে সফরকারীরা। পিছিয়ে আছে আরও ২৯ রানে। দিমুথ করুনারত্নে ১৮ রান নিয়ে শেষদিন ব্যাট করতে নামবেন।

oshada run outমুশফিকুর রহিম

প্রথম ইনিংসে ৩৯৭ রানে অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা। ১ রানের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি থেকে বঞ্চিত হন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। দিনেশ চান্দিমাল এবং কুশাল মেন্ডিসের ব্যাট থেকে আসে যথাক্রমে ৬৬ এবং ৫৪ রান। ছয় ব্যাটসম্যানকে ফেরান অফ স্পিনার নাঈম হাসান। সাকিব আল হাসানের শিকার তিন উইকেট।

জবাব দিতে নেমে বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম চোট পাওয়ায় ৪৬৫ রানে শেষ হয় বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস। দুটি জুটির ওপর ভর করে এই পুঁজি পেয়েছে বাংলাদেশ। উদ্বোধনী জুটিতে তামিম ইকবাল খান এবং মাহমুদুল হাসান জয় করেন ১৬২ রান। এরপর লিটন কুমার দাসকে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে ১৬৪ রানে জুটি গড়েন মুশফিকুর রহিম।

bd 465 runs৪৬৫ রানে শেষ হয় বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস

বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোরার সাবেক এই অধিনায়ক। ব্যক্তিগত ১০৫ রানে লাসিথ এম্বুলদেনিয়ার বলে বোল্ড হন মুশফিক। গতকাল চা বিরতির সময় ১৩৩ রানে বিশ্রামে যান তামিম। আজ লিটন কুমার দাস আউট হলে ক্রিজে আসেন। কোন রান যোগ না করেই কাসুন রাজিথার শিকার হন টাইগারদের ওয়ানডে দলপতি। এর আগে ১৮৯ বলে ১০ চারের মারে ৮৮ রান করে ফিরে যান উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান লিটন।

মুশফিকের আগেই সাজঘরের পথে হাঁটেন সাকিব। এই তারকা ক্রিকেটারের ব্যাট থেকে আসে ২৬ রান। তাইজুল ইসলাম করেন ২০ রান। বিশ্ব ফার্নান্দোর কনকাশন সাবের সুযোগটা বেশ ভালোভাবেই কাজে লাগিয়েছেন কাসুন রাজিথা। ৬০ রানের বিনিময়ে চার উইকেট নিয়ে লঙ্কানদের হয়ে বল হাতে সবচেয়ে সফল এই পেসার। আসিথা ফার্নান্দোর শিকার তিন উইকেট।