advertisement
আপনি পড়ছেন

সাগরিকায় আজ বুধবার স্মরণীয় দিন কাটিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। অর্জনের সম্ভারে ভেসেছেন তিনি। ক্যারিয়ারের অষ্টম টেস্ট সেঞ্চুরির সঙ্গে প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে ৫ হাজার রানের গৌরব অর্জন করেছেন। দিনের খেলা শেষে ড্রেসিংরুমে কেক কেটে মুশফিকের এই মাইলফলক উদযাপন করেছে বাংলাদেশ দল। সতীর্থরা অভিনন্দন জানিয়েছেন এ অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানকে।

mushfiq joyমুশফিক ও জয়

কেক কেটেই মুশফিক ডেকেছেন মাহমুদুল হাসান জয়কে। টেস্ট দলে এখন সর্বকনিষ্ঠ সদস্য এ তরুণ। সাবেক এ অধিনায়ক অনুজকে বলেছেন, ‘৫ হাজার নয়, তুই একদিন ১০ হাজার রান করবি।’ এই বলে জয়কে কেক খাইয়ে দেন তিনি।

বাংলাদেশে অভিজ্ঞতা মূল্যহীন, কিছুটা অভিমানের সুরেই মুশফিক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘কিছু চাওয়ার নেই। বাংলাদেশে আসলে অভিজ্ঞতার দাম নেই। ১৭ বছর যে কাটিয়েছি এটাই অনেক বড় ব্যাপার। সামনে আল্লাহপাক আমার জন্য যতটুকু রেখেছেন ততটুকুই ভালোভাবে খেলতে চাই।’

mushfiqur rahim celebrates 8th centuryসেঞ্চুরির পর মুশফিক

তিনি আরও বলেন, ‘আমি আজ ৫ হাজার রানের জন্য কেক কেটে ড্রেসিংরুমে উদযাপন করার সময় জয়কে খাইয়ে বলেছি যে, তুই এখানে সর্বকনিষ্ঠ ব্যাটসম্যান। তোর সম্ভাবনা আছে ১০ হাজার রান করার। আশাকরি তুই সেদিন অন্য নতুন কাউকে এরকম কেক খাইয়ে দিবি। আর এই লিগ্যাসিটা সামনে এগিয়ে যাবে।’

টেস্টে ৫ হাজার রান করতে পেরে খুশি মুশফিক। তৃপ্তির কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, খুবই ভালো লাগছে যে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে আমি ৫ হাজার রান করেছি এবং আমি আশা করছি এটাই প্রথম না। অনেক খেলোয়াড় আছে যারা ক্যাপাবল। আমাদের অনেক জুনিয়র আছে, ইনশাআল্লাহ ওরা ভবিষ্যতে ৮-১০ হাজার রান করবে টেস্টে।’

এই মাইলফলক অর্জনে তামিমের সঙ্গে দ্বৈরথ চলছিল মুশফিকের। গতকাল ক্র্যাম্প করে বের না হলে তামিমই আগে ৫ হাজার রান পূর্ণ করতে পারতেন। আজ তামিম নামার আগেই যেটি পার হয়েছেন মুশফিক।

বন্ধুর সঙ্গে এই অন্যরকম লড়াই সম্পর্কে উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান মুশি বলেন, ‘ও (তামিম) আমাকে অভিনন্দন জানিয়েছে। আর তামিম তো আমার ২০০ রানের রেকর্ড ভেঙেছিল। আমি যে ভালোটা করবো, সেটা বন্ধু-ভাই করলে ভালোই লাগে। এরপর ওই আমাকে বলেছে যে, দুই-তিন বছরে তুই আবার ২০০ করবি। আমি মনে করি এটা খুব ভালো প্রতিযোগিতা। এটা থাকলে দলেরই ভালো।’