advertisement
আপনি পড়ছেন

পয়েন্ট টেবিলের এতটাই নিচে ছিল যে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে ম্যাচ হারা-জেতা নিয়ে কোনো মাথাব্যথা ছিল না। অন্যদিকে মরণ-বাঁচার ম্যাচ ছিল মোস্তাফিজের দল দিল্লি ক্যাপিটালসের জন্য। কিন্তু যাদের জয়ের দরকার ছিল না তারা পেল জয়, আর যাদের জয়ের একান্ত দরকার ছিল, তারা মাঠ ছেড়েছে মাথা নিচু করে। আর এ জয়ে মুখের হাসি চওড়া হয়েছে বিরাট কোহলিদের। চতুর্থ দল হিসেবে আইপিএলের প্লে-অফ চলে গেল বিরাটের আরসিবি। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

pant miss a catchব্রেভিসের ক্যাচ ছাড়ছেন পান্ট

এদিন টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং বেছে নেন মুম্বাই অধিনায়ক রোহিত শর্মা। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা একেবারেই ভাল হয়নি দিল্লির। ৫০ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপের মুখে পড়ে যায় দিল্লি। এরপর পন্থ ও পাওয়েল কিছুটা থিতু হন। তারা দুজনে করেন যথাক্রমে ৩৯ ও ৪৩ রান। শেষের দিকে অক্ষর প্যাটেলের ১০ বলে ১৯ রানের ছোট ক্যামিও ইনিংস দিল্লিকে ১৫৯ রানের মোটামুটি সম্মানজনক স্কোর পেতে সহায়তা করে। মুম্বাইয়ের জাসপ্রিত বুমরাহ ২৫ রান খরচে তুলে নেন তিন উইকেট।

জবাব দিতে নেমে জঘন্য শুরু করে মুম্বাইও। পাওয়ার প্লের কোনো সুবিধাই নিতে পারেনি দলটি। অধিনায়ক রোহিত শর্মার দুই রান করতে খরচ হয় ১৩ বল। তবে তার আউটের পর রান সংগ্রহে গতি আসে। ঈশান কিষান ও ব্রেভিস জুটিতে লড়াইয়ে ফেরে মুম্বাই। ঈশানের ৪৮ ও ব্রেভিসের ৩৭ রানের ওপর ভর করে মুম্বাই এগিয়ে যায়। পরে টিম ডেভিডের কার্যকরী ইনিংস (১১ বলে ৩৪ রান) জয়ের আলো দেখায় মুম্বাইকে। ইনিংসের শেষ প্রান্তে এসে হাল ধরেন রমণদীপ। ৬ বলে ১৩ রান করেন তিনি। এতে ৫ বল হাতে রেখে ৫ উইকেটে জিতে যান রোহিতরা। এদিন অবশ্য দিল্লির হয়ে মাঠে দেখা যায়নি মোস্তাফিজকে।

powell was bowled by bumrahজাসপ্রিত বুমরার ইয়র্কারে বোল্ড পাওয়েল

গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে দিল্লিকে ভুগিয়েছে অধিনায়ক স্বয়ং। এদিন ঋষভ পন্থ প্রথমে ব্রেভিসের সহজ ক্যাচ ছাড়েন। পরে আবার টিম ডেভিডের নিশ্চিত কট বিহাইন্ডে রিভিউ নেননি। পন্থের এই জোড়া ভুলই অনেক বড় হয়ে দেখা দিয়েছে। দিল্লিকে ছিটকে দিয়েছে টুর্নামেন্ট থেকে।

মুম্বাইয়ের এ জয়ে অবশ্য তেমন কোনো লাভ হয়নি। ১৪ খেলায় ৮ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতেই রয়ে গেছে। তবে কপাল পুড়েছে দিল্লির। এ ম্যাচটি জিতলে শ্রেয়তর রানরেটের ভিত্তিতে প্লে-অফ খেলার সুযোগ ছিল তাদের। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত জয়টি না পাওয়ায় পঞ্চম হয়েই টুর্নামেন্ট শেষ করতে হলো তাদের।

এদিকে মুম্বাইয়ের জয়ে নিঃসন্দেহে সবচেয়ে লাভবান হয়েছে আরসিবি। আগামী বুধবার ইডেনে আইপিএলের এলিমিনেটর ম্যাচে লোকেশ রাহুলের লখনউ সুপারজায়ান্টসের মুখোমুখি হবেন কোহলিরা। তার আগে মঙ্গলবার প্রথম কোয়ালিফায়ারে মুখোমুখি হবে গুজরাট টাইটানস ও রাজস্থান রয়েলস। এ ম্যাচটিও হবে কলকাতায়।