advertisement
আপনি পড়ছেন

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে ৫ ও ৬ জুন দুই ভাগে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা ওয়েস্ট ইন্ডিজের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বেন। প্রায় মাসব্যাপী সফরে ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে দুটি টেস্ট, তিনটি করে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে খেলবে বাংলাদেশ দল।

shakib al hasan bangladeshসাকিব আল হাসান

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটা আইসিসি ওডিআই সুপার লিগের অংশ নয়। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। যার কারণেই হয়তো ওয়ানডে সিরিজের গুরুত্ব কমে গেছে সাকিব আল হাসানের কাছে। ওয়ানডে সিরিজে বিশ্রাম চাইছেন বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার।

পবিত্র হজব্রত পালনের কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পুরোটাই মিস করবেন মুশফিকুর রহিম। ক্যারিবিয়ানে সাকিবকেও তিন ফরম্যাটে পাওয়া যাবে না।

ইতোমধ্যে বিসিবিকে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানিয়েছেন সাকিব। সফরের শুরুতে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেললেও ওয়ানডেতে ছুটি নিতে চান। দলীয় সূত্রে রোববার জানা গেছে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট শেষ হলেই বিসিবিকে চিঠি দেবেন সাকিব।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস এ প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘মৌখিকভাবে সে বলেছে একটা ফরম্যাট খেলতে চাইছে না। বিশ্রামের প্রয়োজন। আবার টেস্ট খেলবে সেটাও জানিয়েছে। আমরা তার থেকে এখনো আনুষ্ঠানিক কিছু পাইনি। আমরা তাকে সব ফরম্যাটেই চাই। সেভাবেই পরিকল্পনা করা হচ্ছে।’

জানা গেছে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শেষ করেই যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে চলে যাবেন সাকিব। পরে সেখান থেকেই ওয়েস্ট ইন্ডিজে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন।

ক্যারিবিয়ানে প্রথম টেস্ট ১৬ জুন, দ্বিতীয় টেস্ট ২৪ জুন শুরু হবে। তিন টি-টোয়েন্টি অনুষ্ঠিত হবে ২, ৩ ও ৭ জুলাই। এরপর ওয়ানডে ম্যাচগুলি মাঠে গড়াবে ১০, ১৩ ও ১৬ জুলাই।