advertisement
আপনি পড়ছেন

রাজস্থান রয়্যালসের বড় রানের জবাবটা দারুণভাবেই দিচ্ছিল গুজরাট টাইটান্স। বিগ ম্যাচ হলে যা হয় আরকি। এই দুই দলের লড়াইয়েও তেমন কিছুরই দেখা মিলেছে। রোমাঞ্চটা এসে পৌঁছায় শেষ ওভারে। সেখান সফল প্রথমবারের মতো কোটি টাকার টুর্নামেন্ট খেলতে আসা ফ্র্যাঞ্চাইজটি। ব্যাট হাতে তাণ্ডবলীলা চালিয়ে দলটিকে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে নিয়ে গেছেন ডেভিড মিলার।

gt in the finalজয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন পান্ডিয়া এবং মিলার

চলমান আইপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ারে গতকাল রাজস্থান রয়্যালসকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে গুজরাট টাইটান্স। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্স স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে ১৮৮ রানের পুঁজি পায় সাঞ্জু স্যামসনের দল। হার্দিক পান্ডিয়ারা সেটাকে টপকে গেছে ৩ বল হাতে রেখেই। দুর্দান্ত ব্যাটিং করে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছেন মিলার।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে গুজরাটের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৮ রান করেন মিলার। দক্ষিণ আফ্রিকার এই মারকুটে ব্যাটারের ৩৮ বলের ইনিংসটা সাজানো ছিল তিন চার এবং পাঁচটি ছয়ের মারে। শেষ ওভারে জয়ের জন্য ১৫ রান দরকার ছিল গুজরাটের। প্রথম তিন বলে তিন ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে ফাইনালে নিয়ে যান কিলার মিলার।

gt in the final 2বিধ্বংসী ইনিংস খেলেছেন মিলার

চতুর্থ উইকেটে পান্ডিয়াকে নিয়ে ১০৬ রানের নিরবচ্ছিন্ন জুটি গড়েন মিলার। দুজনে মিলে খেলেন ৬১ বল। পাঁচ চারের সাহায্যে ২৭ বলে ৪০ রান করে অপরাজিত থাকেন অধিনায়ক। এর আগে শুরুটা ভালো হয়নি দলটির। রানের খাতা খোলার আগেই ফিরে যান সাহা। এরপর ৭২ রানের জুটি গড়েন শুভমান গিল এবং ম্যাথু ওয়েড। দুজনেই খেলেন সমান ৩৫ রানের ইনিংস।

রাজস্থানের বড় সংগ্রহ এনে দিতে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখেন জস বাটলার। ব্যক্তিগত ৮৯ রানে রান আউটের ফাঁদে পড়েন এই ইংলিশ ওপেনার। ৫৬ বলে ১২ চারের পাশাপাশি মারেন দুই ছয়। দলপতি স্যামসনের ব্যাট থেকে আসে ৪৭ রান। দেবদূত পাড়িকল করেন ২৮ রান।