advertisement
আপনি পড়ছেন

রিয়াল মাদ্রিদকে পেছনে ফেলে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ আট নিশ্চিত করতে হলে অনেকদিন গল্প করার মতোই কিছু করতে হতো নাপোলিকে। কারণ শেষ ষোলর লড়াইয়ের প্রথম লেগে রিয়ালের মাঠ থেকে ৩-১ গোলে হেরে এসেছিল ইতালির দলটি। তারপরও হয়তো কেউ কেউ স্বপ্ন দেখছিলেন। কারণ দ্বিতীয় লেগটা যে নাপোলির মাঠে। কিন্তু স্বপ্নপূরণের আশেপাশেও যেতে পারেনি নাপোলি। ঘরের মাঠে দ্বিতীয় লেগেও ঠিক ৩-১ গোলের ব্যবধানে হেরেছে ইতালির জায়ান্টরা। যাতে ৬-২ ব্যবধানের বিশাল জয় নিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ আটের টিকিট নিশ্চিত করল রিয়াল মাদ্রিদ।

real madrid win

এদিকে, রিয়ালের জয়টাকে ‘বিশাল’ বললে বায়ার্ন মিউনিখের জয়টাকে হয়তো পাহাড়সমই বলতে হবে। ঘরের মাঠে প্রথম লেগে আর্সেনালকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল বায়ার্ন। প্রত্যাশা ছিল দ্বিতীয় লেগে ঘরের মাঠে হারের ব্যবধান কিছুটা কমাবে আর্সেনাল। কিন্তু দ্বিতীয় লেগেও আর্সেনালের ঘরের মাঠে এসে আর্সেনালকে ৫-১ গোলে হারিয়ে দিল বায়ার্ন। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ১০-২ গোলের ব্যবধানে শেষ আট নিশ্চিত হলো জার্মান ক্লাবটির।

মঙ্গলবার রাতে দারুণ জয়ের আনন্দ নিয়ে মাঠ ছাড়লেও শুরুর দিকে কিন্তু বিপদই দেখছিল রিয়াল মাদ্রিদ। প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি জিনেদিন জিদানের দল। তার উপর ম্যাচের ২৪ মিনিটে মের্টেন্সের গোলে ১-০ তে এগিয়ে যায় নাপোলি। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার সময় নাপোলি ১-০ তে এগিয়ে।

তবে দৃশ্যাপট অবশ্য পাল্টেছে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই। ৫১ মিনিটে দারুণ এক গোল করে রিয়াল মাদ্রিদকে ১-১ গোলের সমতা এনে দেন সার্জিও রামোস। ছয় মিনিট পরই আত্মঘাতি গোল হজম করে বসে নাপোলি, ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে রিয়াল। মাদ্রিদের ক্লাবটির শেষ আট মূলত তখনই নিশ্চিত হয়েছে।

ম্যাচের যোগ করা সময়ে দারুণ এক গোল করে কেবল জয়ের ব্যবধান বাড়িয়েছেন আলভারো মোরাতা।

এদিকে, আর্সেনালের মাঠে বায়ার্ন মিউনিখের ৫-১ গোলের জয়ে বায়ার্নের হয়ে গোল জোড়া গোল করেছেন আর্তুরো ভিদাল। এছাড়া একটি করে গোল করেছেন রবার্ট লেভানডফস্কি, অ্যারিয়েন রোবেন ও ডগলাস কস্তা। আর্সেনালের একমাত্র গোলটি করেছেন ওয়ালকেট।