advertisement
আপনি পড়ছেন

‘মেসি নিষিদ্ধ হতে পারেন’ এই গুঞ্জন আগে থেকেই ছড়াচ্ছিল। কিন্তু গুঞ্জনটা যে এতো নির্মমভাবে সত্যি হবে সেটা হয়তো কেউ অনুমান করতে পারেননি। আর্জেন্টিনার হয়ে চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছে লিওনেল মেসি। অর্থাৎ আগামী চার ম্যাচ আর্জেন্টিনা জার্সিতে দেখা যাবে না মেসিকে। আর্জেন্টিনার জন্য এই খবর বড় দুঃসংবাদের মতোই।

messi ban

নিষেধাজ্ঞার ফলে আজ রাতে বলিভিয়ার বিপক্ষেও মাঠে নামতে পারছেন না মেসি। শুধু আজ নয়, বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে আর্জেন্টিনার পরের তিন ম্যাচ উরুগুয়ে, ভেনেজুয়েলা ও পেরুর বিপক্ষেও খেলা হচ্ছে না মেসির।

মেসির কাঁধে সওয়ার হয়েই কোনোমতে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করার দিকে এগোচ্ছিলো আর্জেন্টিনা। গত দুই ম্যাচে মেসি অনেকটা একাই জিতিয়েছেন আর্জেন্টিনাকে। সর্বশেষ ম্যাচে মেসির পেনাল্টি গোলে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

মেসিকে নিষেধাজ্ঞা পেতে হলো ওই ম্যাচে ঝামেলার কারণেই। চিলির বিপক্ষে ম্যাচের একটা মুহূর্তে ম্যাচ অফিসিয়ালদের সঙ্গে লেগে গিয়েছিলেন মেসি। দ্বিতীয় লাইন্সম্যান মার্সেলো ভন গাচ্ছিকে নাকি অশ্রব্য গালিও দিয়েছিলেন মেসি। আবার ম্যাচ শেষ হওয়ার পর ওই লাইন্সম্যানের সঙ্গে হাত মেলাতেও অস্বীকৃতি জানান বার্সেলোনা তারকা।

বিষয়টা পছন্দ হয়নি ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার। এরপরই মেসির বিরুদ্ধে চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলো ফিফা। পাশাপাশি ৮ হাজার ১০০ পাউন্ড জরিমানা করা হয়েছে মেসিকে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৮ লাখ সাড়ে ১৫ হাজার টাকার মতো। কিন্তু দুশ্চিন্তার ব্যাপার মেসির জরিমনা নয়, বরং তার না খেলতে পারা। কে জানে মেসিকে ছাড়া আর্জেন্টিনা শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ নিশ্চিত করতে পারবে কিনা!